সংবাদ শিরোনাম

১৯৬৭ সালের সীমান্ত অনুযায়ী স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্র চায় বাংলাদেশ | রোহিঙ্গা গণহত্যা মামলা লড়তে গাম্বিয়াকে ৫ লাখ ডলার দিয়েছে বাংলাদেশ | মির্জাপুরে মাটি উত্তোলনের দায়ে ব্যবসায়ীকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা | ঝালকাঠিতে হত্যা মামলায় স্কুল শিক্ষিকাসহ গ্রেপ্তার ২ | সিলেট জাপায় শতাধিক নেতাকর্মীর যোগদান | পঞ্চগড় পৌরসভায় আ.লীগের মনোনয়ন পেলেন জাকিয়া খাতুন | মানিকগঞ্জ পৌর নির্বাচনে নৌকা প্রতীক পেলেন সাবেক মেয়র রমজান আলী | চিনিকল বন্ধের ঘোষণা বাতিলসহ ৪ দফা দাবিতে শ্রমিকদের মানববন্ধন | বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের বিরোধিতাকারীদের শাস্তির দাবিতে ঠাকুরগাঁওয়ে মানববন্ধন | একটু জোরে ধাক্কা দিলে সরকার ক্ষমতা থেকে পড়ে যাবে: ডা. জাফরুল্লাহ |

  • আজ ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

অবশেষে লাদাখে শান্তি ফেরাতে একমত ভারত-চীন

১০:৪৮ অপরাহ্ন | বুধবার, নভেম্বর ১১, ২০২০ আন্তর্জাতিক
india

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ অধিকৃত জম্মু-কাশ্মীরের পূর্ব লাদাখের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় (এলএসি) গত কয়েক মাস ধরে চলা চরম উত্তেজনা নিয়ন্ত্রণে একমত হয়েছে ভারত ও চীন। ভারতীয় সংবাদ সংস্থা এএনআই এ তথ্য জানিয়েছে।

শুক্রবার কোর কমান্ডার স্তরের অষ্টম দফার বৈঠকে প্যাংগং হ্রদ লাগোয়া অঞ্চলে ‘মুখোমুখি অবস্থান থেকে সেনা পেছানো’ (ডিসএনগেজমেন্ট) এবং ‘সেনা সংখ্যা কমানো’ (ডিএসক্যালেশন) সংক্রান্ত তিনটি পদক্ষেপের বিষয়ে ‘ইতিবাচক আলোচনা’ হয়েছে।

এএনআই'র প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সীমান্ত এলাকায় উত্তেজনা শুরুর আগের পরিস্থিতিতে ফিরে যাওয়ার ব্যাপারে ঐকমত্যে পৌঁছেছে চীন এবং ভারত। চলতি বছরের এপ্রিলের দিকে পূর্ব লাদাখের বিতর্কিত সীমান্ত এলাকায় উভয় দেশের সামরিক বাহিনীর মধ্যে চরম উত্তেজনা দেখা দেয়।

ওই সময় লাদাখে অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগে দুই দেশের সৈন্যরা সীমান্তে হাতাহাতি ও কিল-ঘুষিতে জড়িয়ে পড়ে। এতে ভারতীয় বেশ কয়েকজন সৈন্যের প্রাণহানি ঘটলেও চীনা সামরিক বাহিনীর কোনও সদস্য হতাহত হয়েছেন কিনা সেব্যাপারে কোনও মন্তব্য করেনি বেইজিং।

বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, আগামী সাতদিনের মধ্যে প্যাংগং হ্রদ এলাকা থেকে সৈন্য প্রত্যাহারের প্রক্রিয়া শুরু করবে দুই দেশ। ওই এলাকায় বর্তমানে চিরবৈরী দুই প্রতিবেশির সামরিক ট্যাঙ্ক, সাঁজোয়া যান ও অন্যান্য ভারী সামরিক সরঞ্জাম নিয়ে মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছে। প্রথম ধাপে এসব যুদ্ধ সরঞ্জাম সরিয়ে নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

দ্বিতীয় দফায় প্যাংগং হ্রদের উত্তর অংশে উভয় দেশের সামরিক বাহিনীর সদস্যদের মাঝে চলমান উত্তেজনা প্রশমনে ব্যবস্থা নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

এএনআই বলছে, এই অঞ্চল থেকে প্রত্যেকদিন ৩০ শতাংশ করে সৈন্য কমাতে সম্মত হয়েছে দু’পক্ষ। এছাড়া সংঘাতের নতুন ক্ষেত্র হয়ে ওঠা প্যাংগং হ্রদের দক্ষিণ অঞ্চল থেকে সৈন্য পিছিয়ে নিতে রাজি হয়েছে উভয় দেশ।