সংবাদ শিরোনাম

মাস্ক পরা বাধ্য করতে বাড়তে পারে জরিমানা | সৌদি প্রিন্সের সঙ্গে ‘গোপন বৈঠকে’ ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী! | শিগগির আরো দুটি বিসিএসের প্রজ্ঞাপন, নিয়োগ পাবেন ৩৮১৪ জন | বিনামূল্যে জনগণের দ্বারপ্রান্তে করোনার ভ্যাকসিন পৌছে দেওয়া হবে: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী | হাসিনা-মোদির ভার্চুয়াল বৈঠকে হতে পারে ৪ চুক্তি | যারা ভাস্কর্যের পক্ষাবলম্বন করছেন তারা মুর্খ ও জ্ঞানপাপী: ইসলামী আন্দোলন | ভারত, পাকিস্তান এবং বাংলাদেশকে একীভূত করা উচিত: ভারতীয় মন্ত্রী | শান্তিকালীন পদক পেলেন ১২৩ সেনা সদস্য | একই রোল নিয়ে পরের ক্লাসে উঠবে প্রাথমিক শিক্ষার্থীরা | দুই মুসলিম বিজ্ঞানী দম্পতির হাত দিয়ে করোনা ভ্যাকসিন আবিষ্কার |

  • আজ ৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

আওয়ামী লীগ দেশের গণতন্ত্র ধ্বংস করেছে: ফখরুল

২:০৪ অপরাহ্ন | শুক্রবার, নভেম্বর ১৩, ২০২০ ঢাকা
mirja

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ আওয়ামী লীগ দেশের গণতন্ত্র ধ্বংস করেছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। শুক্রবার (১২ নভেম্বর) সকালে ঢাকা রিপোর্টার ইউনিটিতে মিট দ্যা রিপোর্টারস-এ তিনি এ অভিযোগ করেন।

বেগম খালেদা জিয়া সম্পর্কে ফখরুল বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া শারীরিকভাবে অসুস্থ হলেও মানসিকভাবে সক্রিয় রয়েছেন। আমাদের রাজনীতিতে তার প্রভাব রয়েছে। তিনি রাজনীতি থেকে যাননি, যাবেন না। তার অস্তিত্ব গভীরভাবে দেশের জনগণের মাঝে আছে।

খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, তার চিকিৎসার জন্য সকল ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। চিকিৎসার জন্য তার বিদেশে যাওয়াটা পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করে।

রাজধানীর বেশ কয়েকটি জায়গায় বাসে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল বলেন, দেশে গণতন্ত্র না থাকলে দুষ্কৃতিকারীরা এমন নাশকতা চালায়। সরকারের কিছু এজেন্ট থাকে যারা এগুলো করে ভালো আন্দোলন বাধাগ্রস্ত করতে গাড়ি পুড়িয়ে নাশকতার সৃষ্টি করে। বাধাগ্রস্ত এমন নাশকতার তীব্র নিন্দা জানাই।

তিনি আরও বলেন, গণতন্ত্রের জন্য বড় অন্তরায় আওয়ামী লীগ, বিএনপি নয়। তারাই দেশের গণতন্ত্র ধ্বংস করেছে। বাকশাল গঠন করে তারাই এ দেশের গণতন্ত্রের কবর দিয়েছিলেন। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনসহ বিভিন্ন আইন করেছেন তারা, যা গণতন্ত্রের পক্ষে নয়।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, দেশের সবচেয়ে বড় ক্ষতি করছে এই নির্বাচন কমিশন। মার্কিন নির্বাচন নিয়ে সিইসির বক্তব্য হাস্যকর কথা ছাড়া আর কিছু হতে পারে না। তার বক্তব্যেই রাষ্ট্র কিভাবে চলছে তা প্রতিয়মান হয়েছে।

বিএনপির মহাসচিব আরও বলেন, বাংলাদেশের রাজনৈতিক সংস্কৃতিতে দলীয় সরকারের অধীনে কখনই সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়। নির্বাচন কমিশনকে নিরপেক্ষ হতে হবে, নির্বাচন ব্যবস্থা নিরপেক্ষ হতে হবে।

ডিআরইউয়ের সাগর-রুনী মিলনায়তনে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মঈনুল আহসানের সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সভাপতি রফিকুল ইসলাম আজাদ এবং মির্জা ফখরুলের জীবনী পাঠ করেন সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ চৌধুরী। এ সময় দফতর সম্পাদক মো.জাফর ইকবালসহ কমিটির নেতারা উপস্থিত ছিলেন।