• আজ মঙ্গলবার, ৮ আষাঢ়, ১৪২৮ ৷ ২২ জুন, ২০২১ ৷

বীরগঞ্জে ভূমিদস্যুদের তান্ডবে দিশেহারা আদিবাসী বাবুল মূরমুর পরিবার

Dinajpur
❏ শুক্রবার, নভেম্বর ১৩, ২০২০ রংপুর

শাহ আলম শাহী, স্টাফ রিপোর্টার, দিনাজপুর থেকেঃ দিনাজপুরের বীরগঞ্জে ভূমিদস্যুদের কড়ালগ্রাসে আদিবাসী পরিবারগুলোর অসহায় হয়ে পড়েছে। মরিচা ইউনিয়ন খামার খড়িকাদাম মৌজায় বসবাসরত আদিবাসীদের ভুমি দখল ও নির্যাতন চালিয়ে আসছে স্থানীয় কিছু প্রভাবশালী মহল।

অভিযোগ রয়েছে, খামার খড়িকাদাম গ্রামের আদিবাসী পল্লীতে নানা নির্যাতনের শিকার মৃতঃ রাম টইল মূরমুর ছেলে বাবুল মূরমু (৩৫), মৃতঃ গনেশ মূরমুর ছেলে শিবু রাম মূরমু (৫০), মৃতঃ রুপাই মূরমুর ছেলে রবিন মূরমু (৪৫)।

তারা অভিযোগে জানান, মরিচা গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে জহুর আলী (৫৫), খামার খড়িকাদাম গ্রামের এজার উদ্দিনের ছেলে এ কে এম আজাদ কালাম (মহুরী), আব্দুস সামাদ সহ স্থানীয় প্রভাবশালী ভূমিদস্যু দেউনিয়া প্রকৃতির সন্ত্রাসী চক্রের সাথে জমি জমা নিয়ে আদিবাসী এই পরিবার গুলির দীর্ঘদিনের  বিরোধ চলে আসছিল।

পৈত্রিক সুত্রে প্রাপ্ত, ক্রয়কৃত ও রেকর্ডিও সম্পত্তির প্রকৃত মালিক আদিবাসীদের সাত খামার মৌজার জে এল নং-১১৭ এর অর্তভূক্ত প্রায় ০৪ একর জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে ভূমিদস্যু জহুর আলী মুন্সি এলাকায় কিছু সন্ত্রাসী প্রকৃতির ২০/২৫ জনের একটি সংঘবদ্ধ দল জোর পূর্বক স্থানীয় আদিবাসীদের সম্পতির জাল-জালিয়াত দলিল তৈরি করে অন্যের নিকট বিক্রয়ের নামে টাকা নিয়ে আদিবাসী পারিবার গুলোর উপর নির্যাতন চালিয়ে আসছে। একই ধারাবাহিকতায় সন্ত্রাসী ভূমিদস্যু জহুর আলী মুন্সী সহ সংঘবদ্ধ চত্রুটির দৌরাত্মে বিভিন্ন সময়ে আদিবাসী এই পরিবারের ভোগদখল কৃত জমি-জমা দখলের পায়তারায় লিপ্ত হয়ে নিরিহ অসহায় আদিবাসী বাবুল মুরমু ও অন্যান্য আদিবাসীদের মিথ্যা মামলায় ফাসানোর চক্রান্ত চালিয়ে যাচ্ছে।

এ ব্যাপারে বাবুল মুরমু জানান, উল্লেখিত সন্ত্রাসী মামলাবাজ চত্রুটি  নানান কৌশলে ও বিভিন্ন ভাবে আদিবাসীদের জমি দখল করে তাদের উপর নির্যাতন চালানোর পাশাপাশি ২৯৯পি/১০, ২৪৭সি/১৩, ২৪৪সি/১৩, ২৯৬সি/১১, ২২২/৮ নং জিআর মামলা আনয়ন সহ  ২৫/৩০টি মিথ্যা, বানোয়াট মামলায় ফাসিয়ে তাদের সর্বশান্ত ও নিঃস্ব করে দিয়েছে প্রায়। ভূয়া দলিল সৃস্টিকারী চত্রুটিকে বিবাদি করে বাবুল মূরমু দিনাজপুর জেলা জজ কোর্টে মামলা আনয়ন করে যার নং ৭২/১০।

সম্প্রতি ৯ নভেম্বর,২০ইং সন্ধ্যা রাতে আদিবাসী পল্লী এলাকায় গিয়ে জহুর আলী নিজেই তার একটি পুরাতন জরাজীর্ন মোটরসাইকেলে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে ও আহত হওয়ার নাটক সাজিয়ে আদিবাসী এই পরিবারটিকে আরোও একটি মিথ্যা মামলায় ফাসাঁনোর অপচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে এবং জহুরের সন্ত্রাসীদের নির্যাতন,  প্রাণনাশের হুমকি ধামকিতে চরম আতংকিত ও নিরাপত্তাহীনতায় ভোগা আদিবাসী বাবুলের পরিবার দিশেহারা হয়ে ভূমিদস্যু সন্ত্রাসীদের হাত থেকে বাঁচতে ও শান্তিপূর্ণ ভাবে বসবাস করার জন্য দিনাজপুর জেলা প্রশাসক সহ ঊধ্বর্তন কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।