মির্জাপুরে উপজেলা প্রশাসনের অর্থায়নে ঘর পেলেন বিধবা রুবি বেগম

৩:৪১ অপরাহ্ন | শনিবার, নভেম্বর ১৪, ২০২০ ঢাকা, দেশের খবর
মির্জাপুর উপজেলা প্রশাসন

মো. সানোয়ার হোসেন, মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি- টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে উপজেলা প্রশাসনের অর্থায়নে ঘর পেলেন বিধবা রুবি বেগম (৫০)।

শুক্রবার (১৩ নভেম্বর) বিকেলে উপজেলার মহেড়া ইউনিয়নের ছাওয়ালি গ্রামে বিধবা রুবির জন্য নির্ধারিত ১২ শতাংশ ঘর নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আবদুল মালেক।

জানা যায়, মহেড়া ইউনিয়নের ছাওয়ালি গ্রামের মৃত তরব আলীর মেয়ে রুবির সাথে গত প্রায় ৩০ বছর পূর্বে বিয়ে হয় ঢাকা মিরপুরের বাসিন্দা আলিম মিয়ার সাথে। কিন্তু বিয়ের আনুমানিক ১৫ বছর পর আলিম মিয়া মৃত্যুবরণ করেন। সেই বৈবাহিক জীবনে কোন সন্তান হয়নি তাদের। স্বামীর মৃত্যুর থেকে গত প্রায় দেড় যুগ যাবৎ বাবার বাড়িতেই বসবাস করতো রুবি। স্বামীর মৃত্যুর পর আর বিয়েও করেননি তিনি।

এর আগে রুবির নামে ১২ শতাংশ খাস জমিও বন্দোবস্ত করে উপজেলা ভূমি অফিস। ২৫/২৭ ফিটের আধা পাকা ঘরটি নির্মাণ করতে প্রায় দুই লক্ষাধিক টাকা ব্যয় ধরা হয়েছে বলে জানান উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. আশরাফুজ্জামান।

ঘর পেয়ে প্রতিক্রিয়া হিসেবে রুবি বেগম জানান, সরকার আমারে জায়গা দিছে, এহন আবার ঘরও পাইলাম। আমি খুব খুশী, প্রধানমন্ত্রীরে ধন্যবাদ।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আবদুল মালেক বলেন, “মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে সরকার দেশকে ভূমিহীন- গৃহহীনমুক্ত রাখার যে ঘোষণা দিয়েছে আমরা তা বাস্তবায়নে কাজ করছি। সমাজের বিত্তবানদের পতি তিনি প্রধানমন্ত্রীর এই ঘোষণাকে বাস্তবায়ন করার জন্য এগিয়ে আসার আহ্বান জানাচ্ছি।

ঘর নির্মাণ কাজের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপজেলা নির্বাহী মো. আবদুল মালেক ছাড়াও সহকারি কমিশনার (ভূমি) মো. জুবায়ের হোসেন, মহেড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান বাদশা মিয়া, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. আশরাফুজ্জামান, সার্ভেয়ার ওমর ফারুক, মহেড়া ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা মো. নজরুল ইসলাম ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।