সংবাদ শিরোনাম

সৌদি প্রিন্সের সঙ্গে ‘গোপন বৈঠকে’ ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী! | শিগগির আরো দুটি বিসিএসের প্রজ্ঞাপন, নিয়োগ পাবেন ৩৮১৪ জন | বিনামূল্যে জনগণের দ্বারপ্রান্তে করোনার ভ্যাকসিন পৌছে দেওয়া হবে: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী | হাসিনা-মোদির ভার্চুয়াল বৈঠকে হতে পারে ৪ চুক্তি | যারা ভাস্কর্যের পক্ষাবলম্বন করছেন তারা মুর্খ ও জ্ঞানপাপী: ইসলামী আন্দোলন | ভারত, পাকিস্তান এবং বাংলাদেশকে একীভূত করা উচিত: ভারতীয় মন্ত্রী | শান্তিকালীন পদক পেলেন ১২৩ সেনা সদস্য | একই রোল নিয়ে পরের ক্লাসে উঠবে প্রাথমিক শিক্ষার্থীরা | দুই মুসলিম বিজ্ঞানী দম্পতির হাত দিয়ে করোনা ভ্যাকসিন আবিষ্কার | করোনা প্রতিরোধে অসহায় মানুষের পাশে ইউপি চেয়ারম্যান তোফা |

  • আজ ৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বিএনপি আবারও আগুন সন্ত্রাস শুরু করেছে: কাদের

৪:৩৩ অপরাহ্ন | শনিবার, নভেম্বর ১৪, ২০২০ জাতীয়
কাদের

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- বিএনপির নেতিবাচক রাজনীতির কারণে নির্বাচনে জনগণ প্রত‌্যাখান করায় প্রতিশোধ হিসেবে বাসে আগুন দেওয়া হয়েছে বলে দাবি করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

শনিবার (১৪ নভেম্বর) রাজশাহী জেলার বাগমারা উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন তিনি। ওবায়দুল কাদের তার সরকারি বাসভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সম্মেলনে যুক্ত হন।

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘দেশ যখন উন্নয়নের দিকে এগিয়ে যায়, তখন একটি অশুভ চক্র নানা ষড়যন্ত্রে মেতে ওঠে। উন্নয়ন বিরোধী এই অপশক্তি ক্ষমতায় যেতে চোরাগলি খোঁজে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ‌্যমে গুজব ছড়ানো হচ্ছে। নানা আন্দোলনের অপপ্রচার হচ্ছে। জনগণ তাদের অপপ্রচার নিয়ে সচেতন বলে আমরা মনে করি।’

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলা করে বাংলাদেশের অর্থনীতি যখন ঘুরে দাঁড়াচ্ছে ঠিক সেই মুহূর্তে তারা আবারও আগুন সন্ত্রাস শুরু করেছে। আবার তারাই বলছে সরকারের এজেন্টরা নাকি বাসে এই অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটিয়েছে। কিন্তু দেশ ও রাষ্ট্র যখন সুন্দরভাবে পরিচালিত হচ্ছে তখন ক্ষমতায় অধিষ্ঠ থেকে সরকার কি কখনও এমন ঘটনা ঘটিয়ে দেশকে অস্থিতিশীল করে তুলতে চাইবে?

ওবায়দুল কাদের বলেন, এগুলো বিএনপিরই পুরনো কৌশল। আপনারা জানেন একুশে আগস্টের গ্রেনেড হামলা চালিয়ে তারা আওয়ামী লীগ সভানেত্রীকে প্রাণে মেরে ফেলতে চেয়েছিল। ২০১৩ সালে তারা সারাদেশে জ্বালাও-পোড়াও করেছে। সেই পুরনো কায়দায় তারা আবারও জ্বালাও-পোড়াও শুরু করেছে। দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন কর্মসূচি জনসম্পৃক্ত করে তুলতে না পারা এবং আন্দোলনের জন্য নতুন ইস্যু সৃষ্টির ব্যর্থতায় সহিংসতার পথ বেছে নিয়েছে দলটি। জ্বালাও-পোড়াও বিএনপিরই স্ট্র্যাটেজি।

দলীয় নেতা কর্মীদের উদ্দেশে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, কোনো পকেট কমিটি করা যাবে না, ত্যাগী ও দলের নিবেদিতদের কমিটিতে স্থান করে দিতে হবে।

বাগমারা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এনামুল হকের সভাপতিত্বে সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন, রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মেরাজ উদ্দিন মোল্লা, সাধারণ সম্পাদক গোলাম সরওয়ার আবুল প্রমুখ।