চাঁদপুরে নারী উদ্যোক্তাদের মিলনমেলা: সরকারী ট্রেনিংয়ের দাবী

১১:৩৭ অপরাহ্ন | শনিবার, নভেম্বর ১৪, ২০২০ চট্টগ্রাম
Ladies Hounership

চাঁদপুর প্রতিনিধি: একবিংশ শতাব্দীর নানাবিধ চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে এবং বিভিন্ন অর্থনৈতিক ও সামাজিক বাধা পেরিয়ে নারীরা সমাজে মর্যাদার স্থানে প্রতিষ্ঠিত হতে সর্বদা সচেষ্ট। তবে এ জন্য নারীদের স্বাবলম্বী হতে হবে, হতে হবে আত্মনির্ভরশীল। আর স্বাবলম্বী হওয়ার অন্যতম মাধ্যম হচ্ছে নিজেকে উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তোলা।

এই বিশ্বাসে ‘উই লাভ উই’ এই স্লোগানকে ধারণ করে চাঁদপুরে নারী উদ্যোক্তাদের উইমেন অ্যান্ড ই-কমার্স ফোরামের (ডব্লিউই) মিলনমেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

নারী উদ্যোক্তাদের পরিচিতি ও উৎসাহিত করে আরও এগিয়ে নিতে শুক্রবার (১৩ নভেম্বর) বিকেলে জেলা শহরের মিশন রোড অনন্যা সুপার মার্কেটের চতুর্থতলা লেকভিউ কমিউনিটি সেন্টারের এ মিলনমেলার আয়োজন করা হয়।চাঁদপুরে শতাধিক উদ্যোক্তার মাঝে এদিন ৩৫ জন নারী উদ্যোক্তা অংশ নেন।

তরুণ উদ্যোক্তা আহমেদ সিয়ামের সঞ্চালনায় অংশ নেওয়া নারীদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- নাদিয়া রওশন, খাদিজা ইসলাম তুলি, জুয়েল পাটোয়ারী, সাইফ ইমতিয়াজ, সাদিয়া আফরিন, আনিকা, হুমায়রা, ফারজানা রুম্পা, রাবেয়া সোমা।

মিলনমেলায় নারী উদ্যোক্তারা করোনাকালে দেশীয় পণ্য নিয়ে কাজ করতে সরকারের আর্থিক সহযোগিতার পাশাপাশি আইটি ট্রেনিংয়ের দাবি করেন।

নারী উদ্যোক্তারা বলেন, ‘একটা সময় ফেসবুক শুধুই একটা যোগাযোগমাধ্যম ছিল, যেখানে অনেক পুরোনো বন্ধু খুঁজে পাওয়া যেতে। দেশের বাইরের আত্মীয়স্বজনের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা হতো। কিন্তু বর্তমানে ফেসবুক একটি জনপ্রিয় মাধ্যম হয়ে দাঁড়িয়েছে উদ্যোক্তাদের জন্য। ফেসবুকের মাধ্যমে উদ্যোক্তারা পণ্য কেনাবেচা করতে পারছেন, যাকে আমরা এফ-কমার্স নামে জানি।

সেই এফ-কমার্সের মধ্যে জনপ্রিয় হয়েছে আমাদের উইমেন অ্যান্ড ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম, যাকে আমরা উই বলে জানি। উই হচ্ছে দেশীয় পণ্যের একমাত্র জায়গা, যেখানে আমরা হাজার হাজার নারী উদ্যোক্তাকে একত্র করতে পেরেছি। তাঁরা তাঁদের পণ্য কেনাবেচা থেকে শুরু করে নেটওয়ার্কিং, নানা বিষয়ে কর্মশালা ও ট্রেনিংয়ে অংশগ্রহণ পর্যন্ত করতে পারছেন। এই একটিমাত্র প্ল্যাটফর্মে থেকে অনেকেই তাঁদের হতাশা কাটিয়ে সুন্দর ভবিষ্যতের পরিকল্পনাও করছেন।’

এটাকে কাজে লাগিয়ে অনেকে দক্ষ ও সফল হয়েছেন। অন্যান্য জেলার মতো চাঁদপুরেও ছয়জন নারী উদ্যোক্তা লাখপতি হয়েছেন। ইতিমধ্যে আমাদের উদ্যোক্তারা নানা ধরনের দেশীয় পণ্য, হাতে তৈরি খাবার, পোশাক নিয়ে কাজ করছেন। আমরা চাই, এই মিলনমেলার মাধ্যমে প্রত্যেকেই তাঁর স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করুক।’