নবীগঞ্জে গৃহহীনদের ঘর নির্মাণ কাজের উদ্বোধন 

৮:২২ পূর্বাহ্ন | শুক্রবার, নভেম্বর ২০, ২০২০ সিলেট
Nabiganj

মতিউর মুন্না,  নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি: “আশ্রয়নের অধিকার শেখ হাসিনার উপহার”  এই শ্লোগানকে সামনে রেখে মুজিববর্ষের মধ্যে ভূমিহীন ও গৃহহীন সকল পরিবারের জন্য ঘর নিশ্চিতে সর্বাত্মক কাজ করে যাচ্ছে সরকার।

নবীগঞ্জ উপজেলায় প্রথম পর্যায়ে ‘ক’ শ্রেণি অর্থাৎ ভূমিহীন ও গৃহহীন ৬০টি পরিবারের ঘর নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে।

 বৃহস্পতিবার (১৯ নভেম্বর) সকালে ঘর নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন হবিগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য গাজী মোহাম্মদ শাহনওয়াজ মিলাদ। উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে আনুষ্ঠানিকভাবে আউশকান্দি এলাকায় এর উদ্বোধন করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মহিউদ্দিনের সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- নবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলুল হক চৌধুরী সেলিম, ভাইস চেয়ারম্যান এড.গতি গোবিন্দ দাশ, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) সুমাইয়া মমিন। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, আউশকান্দি ইউপি চেয়ারম্যান মহিবুর রহমান হারুন, পিআইও ছাদু মিয়া, নবীগঞ্জ সাংবাদিক ফোরামের সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান মুন্না, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ছনি চৌধুরী, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান রাজু, ইউপি সদস্য খালেদ আহমদ জজ প্রমুখ।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, নবীগঞ্জ উপজেলায় প্রায় ৩৯০ জন ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের তালিকা সম্পন্ন করা হয়েছে। এর মধ্যে প্রথম পর্যায়ে ‘ক’ শ্রেণি অর্থাৎ ভূমিহীন ও গৃহহীন ৬০টি পরিবারের পুনর্বাসন কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। প্রথম পর্যায়ে ‘ক’ শ্রেণি ভুক্ত ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে ২ শতাংশ খাস জমি প্রদান করে ঘর নির্মাণ করে দেওয়া হবে। দুই কক্ষ বিশিষ্ট প্রতিটি আধা পাকা ঘরের নির্মাণ ব্যয় ধরা হয়েছে ১ লাখ ৭১ হাজার টাকা। সবগুলো বাড়ি সরকার নির্ধারিত একই ডিজাইনে নির্মাণ করা হবে। রান্নাঘর, সংযুক্ত টয়লেট ও ইউলিটি স্পেসসহ অন্যান্য সুবিধা থাকবে এসব বাড়িতে।

এ ব্যাপারে এমপি গাজী মোহাম্মদ শাহনওয়াজ মিলাদ বলেন, দেশরত্ম জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুজিব বর্ষে দেশের সব ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের ঘর দেওয়ার যে ঘোষণা দিয়েছিলেন, তা সফল করতে সর্বাত্মক কাজ চলছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশক্রমে প্রথম পর্যায়ে ‘ক’ শ্রেণি অর্থাৎ ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবার পুনর্বাসন কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। মুজিববর্ষে দেশের সব মানুষকে ঘরে বন্দোবস্তু করে দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছিলেন, বাংলাদেশের একজন মানুষও গৃহহীন থাকবে না। সেই নির্দেশনা অনুযায়ী কাজ শুরু হয়েছে।