সংবাদ শিরোনাম

১৯৬৭ সালের সীমান্ত অনুযায়ী স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্র চায় বাংলাদেশ | রোহিঙ্গা গণহত্যা মামলা লড়তে গাম্বিয়াকে ৫ লাখ ডলার দিয়েছে বাংলাদেশ | মির্জাপুরে মাটি উত্তোলনের দায়ে ব্যবসায়ীকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা | ঝালকাঠিতে হত্যা মামলায় স্কুল শিক্ষিকাসহ গ্রেপ্তার ২ | সিলেট জাপায় শতাধিক নেতাকর্মীর যোগদান | পঞ্চগড় পৌরসভায় আ.লীগের মনোনয়ন পেলেন জাকিয়া খাতুন | মানিকগঞ্জ পৌর নির্বাচনে নৌকা প্রতীক পেলেন সাবেক মেয়র রমজান আলী | চিনিকল বন্ধের ঘোষণা বাতিলসহ ৪ দফা দাবিতে শ্রমিকদের মানববন্ধন | বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের বিরোধিতাকারীদের শাস্তির দাবিতে ঠাকুরগাঁওয়ে মানববন্ধন | একটু জোরে ধাক্কা দিলে সরকার ক্ষমতা থেকে পড়ে যাবে: ডা. জাফরুল্লাহ |

  • আজ ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

মর্গে মৃত নারীদের ধর্ষণ করত মুন্না!

১০:৫৬ পূর্বাহ্ন | শুক্রবার, নভেম্বর ২০, ২০২০ স্পট লাইট

সময়ের কন্ঠস্বর ডেস্ক: ঢাকার সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের মর্গে থাকা মৃত নারীদের ধর্ষণের জঘন্যতম অপরাধের অভিযোগ উঠেছে মুন্না ভগত (২০) নামে এক ডোম সহকারীর বিরুদ্ধে। ইতোমধ্যে ওই যুবককে আটক করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

সিআইডি সূত্রে জানা গেছে, ডোম জতন কুমার লালের ভাগিনা মুন্না ভগত। তিনি মামার সঙ্গেই ওই হাসপাতালের মর্গে সহযোগী হিসেবে কাজ করতো। দুই-তিন বছর ধরে মুন্না মর্গে থাকা মৃত নারীদের ধর্ষণ করে আসছিল। এ অভিযোগের সত্যতা পেয়ে বৃহস্পতিবার (১৯ নভেম্বর) তাকে আটক করে সিআইডি।

সিআইডির অর্গানাইজড ক্রাইম বিভাগের প্রধান অতিরিক্ত ডিআইজি শেখ মো. রেজাউল হায়দার বলেন, জঘন্যতম ও খুবই বিব্রতকর অভিযোগ। অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতার পরই ওই যুবককে আটক করেছে সিআইডি।

তিনি আরও বলেন, বিভিন্ন স্থান থেকে যেসব লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে নেওয়া হতো, সেসব লাশের মধ্য থেকে মৃত নারীদের ধর্ষণ করতো মুন্না।

মুন্নার বিরুদ্ধে মৃত নারীদের ধর্ষণের অভিযোগ প্রসঙ্গে জতন লাল কুমার বলেন, মুন্না মাঝে মধ্যে গাঁজা বা নেশাটেশা করতো। কিন্তু এরকম একটি কাজ সে করতে পারে, তা ভাবতেই পারছি না।