সংবাদ শিরোনাম

সৈয়দপুর-রংপুর মহাসড়ক থেকে অজ্ঞাত লাশ উদ্ধারনন্দীগ্রামে আন্তজেলা ডাকাত দলের সদস্য গ্রেফতারশাহজাদপুরে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কর্মকর্তাদের অর্থায়নে পাকা ঘর পাচ্ছে প্রতিবন্ধী দম্পতিবাংলাদেশে পরীক্ষা চালানোর জন্য ২০ লাখ টিকা দিয়েছে ভারত: রিজভীফরিদপুরের ভাঙ্গায় ট্রাক-মোটরসাইকেল মুখোমুখি সংঘর্ষ: ২ স্কুলছাত্র নিহতযশোর সীমান্তে ১২ লাখ টাকার ফেনসিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী আটকমধ্য প্রাচ্যের সবজি স্কোয়াশ চাষ হচ্ছে এখন নওগাঁর মাটিতেএসএসসির সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রকাশচসিক নির্বাচনে সহিংসতার শঙ্কা ও উদ্বেগের যথেষ্ট কারণ রয়েছে: মাহবুব তালুকদারহিলিতে সড়ক দুর্ঘটনায় চাচা-ভাতিজা নিহত

  • আজ ১১ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

মেয়াদের শেষ সময়ে দায়িত্বে ফিরলেন শাহজাদপুরের মেয়র মিরু

◷ ৫:১৬ অপরাহ্ন ৷ বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ২৬, ২০২০ আলোচিত বাংলাদেশ
মিরু

রাজিব আহমেদ রাসেল, শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর পৌরসভার নির্বাচিত মেয়র ও সিরাজগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা হালিমুল হক মিরু বরখাস্ত হওয়ার দীর্ঘ ৪ বছর পর নিজ পদে ফিরেছেন।

এর আগে হাইকোর্ট থেকে একটি আদেশ স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে পৌছলে তাকে স্বপদে বসার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করে।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় হালিমুল হক মিরু শাহজাদপুর বিসিক বাসষ্ট্যান্ডে পৌছলে হাজারও কর্মী, সমর্থকদের ফুলেল ভালবাসায় সিক্ত হয়। এবং আনন্দ মিছিল নিয়ে পৌরসভায় প্রবেশ করে।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের ২ ফেব্রুয়ারী আওয়ামীলীগের দুগ্রুপের সংঘর্ষ চলাকালে গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান দৈনিক সমকালের সাংবাদিক আব্দুল হাকিম শিমুল। এরপর মেয়র হালিমুল হক মিরুকে প্রধান আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করে শিমুলের স্ত্রী । এই মামলায় গ্রেফতার হওয়ার পর মেয়র পদ থেকে বরখাস্ত হয় মিরু। এরপর দীর্ঘ ২ বছর একটানা কারাগারে থাকার পর গত বছর জামিনে মুক্তিপান মেয়র মিরু।

দীর্ঘদিন পর মেয়র পদে বসতে যাওয়ার অনুভুতি প্রকাশ করতে গিয়ে হালিমুল হক মিরু সাংবাদিকদের বলেন, আমি রাজনৈতিক ষড়যন্ত্রের শিকার। আমি সাংবাদিক শিমুলকে গুলি করিনাই। আমার গুলিতে সে মরে নাই। এটা ব্যালিষ্টিক রিপোর্টে প্রমানিত হয়েছে।

সুতুরাং ষড়যন্ত্র, চক্রান্ত করেই আমাকে মিথ্যা মামলা দিয়ে জনগনের সেবা থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে। আজ স্বপদে আসীন হতে পেরে আমি আনন্দিত ও উচ্ছাসিত। শেষ মুহুর্তে অল্প সময়ে পৌরবাসীর জন্য কিছু করে যেতে চাই।

এবং আগামী ২৮ ডিসেম্বর পৌর নির্বাচনে দল তাকে মনোনয়ন দিলে অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করার অঙ্গীকার করেন।