ভোট জালিয়াতির প্রমাণ মেলেনি, পেনসিলভানিয়ার মামলায়ও হারলেন ট্রাম্প

◷ ১১:০৪ পূর্বাহ্ন ৷ শনিবার, নভেম্বর ২৮, ২০২০ আন্তর্জাতিক
বাইডেন_ট্রাম্প

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে পরাজিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প একের পর এক তুঘলকি কর্মকাণ্ড করেই চলেছেন। এখন আবার বলছেন, জালিয়াতি বা কারচুপি ছাড়াই জো বাইডেন আট কোটি ভোট পাওয়ার প্রমাণ করেই হোয়াইট হাউসে ঢুকতে পারবেন।

এদিকে পেনসিলভানিয়া অঙ্গরাজ্যে আরেকটি আদালতে ট্রাম্পের মামলা খারিজ হয়েছে।

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আইনজীবী রুডি জুলিয়ানি পেনসিলভানিয়া অঙ্গরাজ্যের ভোটের ফলাফল বাতিল চেয়ে আদালতে মামলা করেছিলেন। পেনসিলভানিয়া ফেডারেল আদালত ভোটের ফলাফল প্রত্যয়ন করার ওপর আস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারি করে ২৭ নভেম্বর মামলার শুনানি ঠিক করেছিলেন। অবশ্য এর আগেই রাজ্যের ভোটের ফলাফল প্রত্যয়ন হয়ে গেছে।

২৭ নভেম্বর আদালতের রায়ে বিচারক স্টিফেনোস বিবাস বলেছেন, এ মামলায় সুনির্দিষ্ট কোনো অভিযোগ এবং প্রমাণ নেই। মামলা খারিজ হয়ে যাওয়ার পর প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের আইনজীবীরা জানিয়েছেন, তাঁরা এ নিয়ে আপিল আদালতে যাবেন। সুপ্রিম কোর্ট অভিমুখে ট্রাম্প আইনজীবীদের নিষ্ফল যাত্রা অব্যাহত রয়েছে।

ট্রাম্পের আইনজীবী দলের অন্যতম জেনা এলিস এক টুইটবার্তায় বলেন, পেনসিলভানিয়া অঙ্গরাজ্যের বিচার বিভাগ রাজনৈতিক কারণে রাজ্যের ব্যাপক ভোট জালিয়াতি আড়াল করার প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে। সুপ্রিম কোর্টে গিয়ে এখন বিষয়টি প্রমাণের জন্য তাঁরা সুযোগ পাবেন বলে এমন রায়কে ধন্যবাদ জানান জেনা এলিস।

২০১৬ সালে দখলে নেয়া ডেমোক্র্যাট অঙ্গরাজ্যটিতে হেরে যাওয়া ট্রাম্পের জন্য বড় একটি ধাক্কা হিসেবে দেখা হচ্ছে এবারের নির্বাচনে।

এর আগেও বড় ধরনের কারচুপি হয়েছে এমন প্রমাণ হাজির করতে ব্যর্থ হয় ট্রাম্প শিবির। গত শনিবার এই আবেদন নাকচ করে দেন মার্কিন ডিস্ট্রিক্ট কোর্ট জাজ ম্যাথু ব্রান।

আদেশে তিনি লিখেন, ‘কোনো ধরনের মেরিট ছাড়াই দুর্বল আইনি যুক্তি এবং কাল্পনিক অভিযোগ থেকে আদালতে বিষয়টি উত্থাপন করা হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘এই যুক্তরাষ্ট্রে একজন ভোটারকেও তার অধিকার বঞ্চিত করার সুযোগ নেই, সেখানে দেশটির ষষ্ঠ জনবহুল অঙ্গরাজ্যের সব ভোটারের বিষয়ে সিদ্ধান্ত দেওয়া তো দূরের কথা।’

এদিকে বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের এক প্রশ্নে হোয়াইট হাউস ছাড়ার ইঙ্গিত দিলেও একদিন পর আবার নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ আনেন ট্রাম্প।