ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত বাক-স্বাধীনতার মধ্যে পড়ে না: এরদোয়ান

erdoyan
❏ রবিবার, নভেম্বর ২৯, ২০২০ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- কারো ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত বাকস্বাধীনতার মধ্যে পড়ে না বলে জানিয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান। শনিবার ‘মুসলিম আমেরিকান সোসাইটি (এমএএস)-এর ২৩তম বার্ষিক সভায় একথা বলেন এরদোয়ান। খবর- আনাদোলু এজেন্সি’র

এমএএসের ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানের আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান বলেন, ‘আপনারা অত্যন্ত বেদনার সঙ্গে লক্ষ্য করেছেন, ফ্রান্স বাক-স্বাধীনতার নাম দিয়ে মহানবী মুহাম্মাদ (সা.)-এর অবমাননা করছে। অথচ মানুষের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত বাকস্বাধীনতা থেকে অনেক দূরে। কারণ বাকস্বাধীনতা ও অবমাননা উভয়টি আলাদা বিষয়।’

বিশ্বের সব মুসলিমদের মতবিরোধ পরিহার করে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে এরদোয়ান বলেন, ‘ইসলাম ধর্মের অবমাননা প্রতিরোধের জন্য প্রথমে নিজেদের সব মতবিরোধ পরিহার করে আমাদের মধ্যে ঐক্যবদ্ধতা গড়ে তুলতে হবে।’

করোনাকালে যুক্তরাষ্ট্রের অসহায়-দরিদ্রদের সহায়তায় এমএএসের ভূমিকার ভূয়সী প্রশংসা করেন এরদোয়ান। করোনা মহামারির মধ্যে মানবিকতার উৎকৃষ্ট নমুনা হিসেবে আখ্যায়িত করেন।

এছাড়াও ফিলিস্তিন, জেরুজালেম, ইয়েমেন, সিরিয়াসহ বিশ্বের নিপীড়িত মুসলিম জনগোষ্ঠীর পাশের দাড়ানোর আহ্বান জানান তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান।

উল্লেখ্য, গত ১৭ অক্টোবর ফরাসি ইতিহাস শিক্ষক স্যামুয়েল প্যাটি ক্লাসে মহানবী হজরত মোহাম্মদ (সা:)- এর একটি ব্যঙ্গচিত্র দেখানোর পরই স্কুলের বাইরে চেচেন বংশোদ্ভূত এক তরুণের হাতে খুন হন। এ ঘটনায় দেশটিতে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়।

ওই সময় ফরাসি প্রেসিডেন্ট ম্যাখোঁ মৌলবাদী ইসলামের বিপরীতে দেশের ধর্মনিরপেক্ষ মূল্যবোধ সমুন্নত রাখার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন। তিনি ওই শিক্ষককে ‘বীর’ আখ্যা দিয়ে উগ্র ইসলামপন্থীদের দেশের জন্য হুমকি বলে উল্লেখ করেন। পরে রাষ্ট্রীয়ভাবে ওই কার্টুন প্রদর্শনও করা হয় ফ্রান্সে।

এ ঘটনাকে ঘিরে মুসলিম প্রধান দেশগুলোতে তীব্র প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়েছে।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন