মুসলিম উম্মাহর বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে: চরমোনাই পীর

চরমোনাই পীর
❏ বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ৩, ২০২০ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- ইসলাম ও মুসলিম উম্মাহর বিরুদ্ধে চতুর্মূখী গভীর ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির ও চরমোনাই পীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম।

তিনি বলেন, একটি মহল ইসলামপন্থিদের বিরুদ্ধে চক্রান্তে মেতে উঠেছে। ওলামায়ে কেরামকে সরকারের মুখোমুখি দাঁড় করে দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির পাঁয়তারা চরছে।

বুধবার (২ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এসব কথা বলেন মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম।

তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের দীর্ঘ ৫০ বছর পর এসে কুতুবল আলম আল্লামা ফজলুল করীম পীর সাহেব চরমোনাইকে (রহ.) রাজাকার বলে গালি-গালাজ করছে। অথচ বরিশাল অঞ্চলের মুক্তিযোদ্ধা মাত্রই সবার আশা-ভরসার স্থল ছিল চরমোনাই মাদরাসা। চরমোনাই মাদরাসায় মুক্তিযোদ্ধাদের ক্যাম্প ছিল।

দীর্ঘ ৫০ বছর পর কে বা কারা মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ নামক সংগঠনকে চরমোনাই পীর ও মাদরাসার বিরুদ্ধে লেলিয়ে দিলেন তা আমাদের বুঝে আসে না। দেশের শীর্ষ ধর্মীয় নেতা ও ওলামায়ে কেরামের বিরুদ্ধে মানহানিকর কথাবার্তা বলে পরিবেশ উত্তপ্ত করে তারা জাতিকে কী বার্তা দিতে চায়?

মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম বলেন, ইসলামের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে ইতিহাসের পরাশক্তি নমরুদ, ফেরাউন, কারুন, সাদ্দাদ, গৌরগোবিন্দরা রেহাই পায়নি। বর্তমানেও কেউ পাবে না। ওই উগ্রবাদী মহলটিকে এখনই চিহ্নিত করে কঠোর শাস্তির আওতায় আনতে হবে। অন্যথায় দেশের সম্প্রীতি বিনষ্ট করে দেশকে এরা অনিশ্চয়তার দিকে নিয়ে যাবে।

পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, দেশ, ইসলাম ও মানবতা আজ চরম ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে। তাবৎ ইসলামবিদ্বেষী শক্তিগুলো ‘আল-কুফরু মিল্লাতুন ওয়াহিদা’ হয়ে কাজ করছে। ইসলাম ও মুসলিম উম্মাহর স্বার্থে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান জানান তিনি।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন