আলেমদের বিপথে চালিত করছে সরকার: ডা. জাফরুল্লাহ

jadorullah
❏ শুক্রবার, ডিসেম্বর ৪, ২০২০ ঢাকা

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ দেশের চলমান নৈরাজ্য থেকে দৃষ্টি সরাতেই সরকার আলেমদের বিপথে চালিত করছে দাবি করে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ড. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, স্বাস্থ্যখাতের দুর্নীতি ও দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিসহ চলমান নৈরাজ্য থেকে জনগণের দৃষ্টি সরাতে সরকার আলেমদের ব্যবহার করছে।

শুক্রবার (০৪ ডিসেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে স্বাস্থ্য খাতে নৈরাজ্য-দুর্নীতি বন্ধ ও ওষুধের লাগামহীন মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে বাংলাদেশ লেবার পার্টি আয়োজিত সমাবেশে এসব কথা বলেন ডা. জাফরুল্লাহ।

তিনি বলেন, ‘দ্রব্যমূল্যের দাম বেড়েছে, দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা হচ্ছে না। আলেমদের বলি, অযথা বিতর্কে না জড়িয়ে এসবের জন্য মাঠে নামেন। সরকারের কিছু পয়সা পেয়ে তাদের কথায় নাইচেন না। সরকারের কথায় নাচলে আপনাদের ক্ষতি হবে।’

ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, ওষুধ থেকে শুরু করে প্রতিটি ক্ষেত্রেই আজ থেকে ১৫ দিনের মধ্যে সরকার যদি নিয়ম-নীতি মানে তাহলে ওষুধের দাম কমপক্ষে অর্ধেক হবে। দ্রব্যমূল্য চক্রাকারে বৃদ্ধি পাচ্ছে, ওষুধের মূল্যবৃদ্ধি কমানো হয়নি। এসবের সুবিধা পাচ্ছে মধ্যস্বত্বভোগীরা।

করোনার ভ্যাকসিন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সরকার আজ ব্যবসায়ীদের সরকার। ভ্যাকসিন যথার্থ প্রমাণিত না হওয়া পর্যন্ত তাড়াহুড়োর কোনো কারণ নেই।

অনুমতি ছাড়া সভা-সমাবেশে নিষেধাজ্ঞা প্রসঙ্গে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, পুলিশকে দিয়ে যে হঠাৎ নোটিশ, পুলিশ সরকারের খাদেম না, জনগণের খাদেম। পুলিশেরও অভাব-অভিযোগ আছে। আজকে পুলিশ অফিসারদের বাড়ি-ঘর নেই। তাদের বাইরে গিয়ে বেতনের বেশি ভাড়া দিয়ে থাকতে হয়। এই অবস্থায় থাকলে ঘুষ খাবে না তো কী করবে?

সমাবেশে আরো উপস্থিত ছিলেন লেবার পার্টির সভাপতি ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, গণস্বাস্থ্যের প্রেস উপদেষ্টা জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু প্রমুখ।