সারাদেশে পৃথক দুর্ঘটনায় নিহত ২০

◷ ১০:৪৯ অপরাহ্ন ৷ শুক্রবার, ডিসেম্বর ৪, ২০২০ অকালমৃত্যু প্রতিদিন
sorok

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ দেশের বিভিন্ন জেলায় পৃথক দুর্ঘটনায় ২০ জন নিহতের খবর পাওয়া গেছে। শুক্রবার (৪ ডিসেম্বর) সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত এসব দুর্ঘটনা ঘটে।

মানিকগঞ্জের দৌলতপুর উপজেলায় মানিকগঞ্জ-দৌলতপুর সড়কে যাত্রীবাহী বাস ও সিএনজিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে শুক্রবার দুপুরে একই পরিবারের ছয়জনসহ মোট সাতজন নিহত হয়েছেন।

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে শুক্রবার সকালে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় ছয়জন নিহত এবং বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে মির্জাপুর উপজেলার কুরনী নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, দুর্ঘটনায় নিহতদের সবাই দিনমজুর ও পোষাক শ্রমিক। আহতদের স্থানীয় কুমুদিনী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মাগুরায় শুক্রবার পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় দুই নারীসহ তিনজন নিহত হয়েছেন। তারা হলেন- শালিখা উপজেলার থৈপাড়া গ্রামের মিল্টন মজুমদারের স্ত্রী স্বর্ণলতা মজুমদার (২৫) তার ভাইয়ের স্ত্রী সাথি মজুমদার (৩৫) এবং পল্লী চিকিত্সক আহাদ আলি মোল্যা (৬০)।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে স্বর্ণলতা মজুমদার ও সাথি মাগুরা-ফরিদপুর সড়কের ঠাকুরবাড়ি এলাকায় রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে যানবাহনের জন্য অপেক্ষা করছিলেন। এ সময় ঢাকাগামী সবজি বোঝাই একটি ট্রাক অন্য একটি অটোকে সাইড দিতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পড়ে যায়। এতে ট্রাকের নীচে চাপা পড়ে স্বর্ণলতা, সাথি এবং একই পরিবারের সেতু এবং অপর্ণা আহত হন।

লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলায় ট্রেনে কাটা পড়ে দুজনের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার সকাল ও দুপুরে লালমনিরহাট-বুড়িমারী রেল রুটের ওই উপজেলায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত মোটরসাইকেল আরোহী রহিদুল ইসলাম এমরান (২৬) উপজেলার দলগ্রাম ইউনিয়নের সাদেকুল ইসলাম রইসুলের ছেলে। তবে মানসিক ভারসাম্যহীন ব্যক্তির পরিচয় পাওয়া যায়নি।

বগুড়ার নন্দীগ্রামে গ্রামীণ সড়কে ধানবোঝাই অটোভ্যানের ধাক্কায় এক শিশু নিহত হয়েছে। নিহত জাহিদ (৪) ওই গ্রামের ফারুক হোসেনের ছেলে। শুক্রবার বিকাল ৩টার দিকে উপজেলার বেলঘরিয়া গ্রাম এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

এছাড়া নাটোর সদর উপজেলায় রাস্তা পার হওয়ার সময় ট্রাকের ধাক্কায় আলাল ফকির (৬৫) নামে এক পথচারী নিহত হয়েছেন। শুক্রবার সকালে উপজেলার হয়বতপুর বাজারে এ দুর্ঘটনা ঘটে।