সংবাদ শিরোনাম

কোটালীপাড়ায় রাস্তা নির্মাণে বাঁধা, এলাকাবাসীর ক্ষোভসীমান্তে চীন ও ভারতের সেনাদের মধ্যে ‘ফের সংঘর্ষ’নোয়াখালীতে আ’লীগ সভাপতিকে কুপিয়ে জখমসিটি ব্যাংকের স্থানান্তরিত গুলশান শাখার উদ্বোধনমেয়াদ উত্তীর্ণ বিএনপির কমিটি বাতিলের দাবিতে জামালপুরে ঝাড়ু হাতে বিক্ষোভচট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করবে না সরকার: কাদেররংপুরে ছাত্রীনিবাস থেকে কলেজ ছাত্রীর মরদেহ উদ্ধারকক্সবাজারে ভুয়া ফেসবুক আইডি খুলে অপপ্রচার, চলছে ভয়ংকর ব্ল্যাকমেইলওশাহজালালে জাল ভিসায় যুক্তরাজ্য যাওয়ার চেষ্টা, ভারতীয় নাগরিক আটক৪-৫ দিনের মধ্যে দেশের সব জেলায় ভ্যাকসিন যাবে: পাপন

  • আজ ১১ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

সারা দেশে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালের নিরাপত্তা দেওয়ার নির্দেশ

◷ ২:৪৭ অপরাহ্ন ৷ সোমবার, ডিসেম্বর ৭, ২০২০ ফিচার
হাইকোর্ট

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- দেশের যে কোনো স্থানে নির্মিত ও নির্মাণাধীন বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল এবং সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে নির্মাধীন কমপ্লেক্সের পর্যাপ্ত নিরাপত্তার জন্য অবিলম্বে পদক্ষেপ নিতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

সোমবার (৭ ডিসেম্বর) বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি শাহেদ নূরউদ্দিনের ভার্চ্যুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। মন্ত্রিপরিষদ সচিবকে এ আদেশ বাস্তবায়নে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে বলা হয়েছে।

অন্য একটি রিট মামলার শুনানিকালে সোমবার (৭ ডিসেম্বর) বিচারপতি এফআরএম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি শাহেদ নুর উদ্দিনের সমন্বয়ে গঠিত ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট ড. বশির আহমেদ। আর রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এবিএম আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার।
শুনানিকালে দেশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলায় মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের সামনে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল স্থাপন করা নিয়ে মন্ত্রণালয়ের কার্যক্রমের প্রশংসা করেন আদালত।

এরপর আদালত তার আদেশে সারাদেশের মুক্তিযুদ্ধ কমপ্লেক্সের সামনে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এবং ৭ই মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণের স্থানে বঙ্গবন্ধু ম্যুরাল স্থাপনের বিষয়ে নির্দেশ দেন। আগামী একমাসের মধ্যে এ নির্দেশ বাস্তবায়ন করে আদালত প্রতিবেদন দাখিলও করতে বলেছেন।

এর আগে এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে ২০১৭ সালের ২০ নভেম্বর এক রিটের শুনানি নিয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭১ সালের ৭ই মার্চে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ঐতিহাসিক ভাষণের স্থানে মঞ্চ পুনর্নির্মাণ করে সেখানে তাঁর ভাস্কর্য এবং ৭ই মার্চকে ঐতিহাসিক জাতীয় দিবস হিসেবে কেন ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট। সংস্কৃত মন্ত্রণালয় সচিবসহ সংশ্লিষ্টদের এ রুলের জবাব দিতে বলা হয়। সোমবার ওই রুলের শুনানিকালে আদালত উপরোক্ত আদেশ দিলেন।

এদিকে, বঙ্গবন্ধুসহ সব ভাস্কর্যের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার নির্দেশনা চেয়ে আরেকটি শুনানির জন্য আগামীকাল মঙ্গলবার দিন ধার্য করেছেন হাইকোর্টের অপর একটি বেঞ্চ। সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী উত্ম লাহিড়ী গতকাল রোববার রিট আবেদনটি দায়ের করেন।