🕓 সংবাদ শিরোনাম

সেচের অভাবে ত্রিশালে আমন চারা রোপণে দুশ্চিন্তায় কৃষকরাবিশ্ব ঐতিহ্য সুন্দরবনে ২৭৬ টি রয়েল বেঙ্গল টাইগারের হদিস নেই!শেরপুরে ব্রক্ষপুত্র নদীর ভাঙ্গন, বিলীন হচ্ছে ফসলি জমিব্ল্যাক ফাঙ্গাসে আক্রান্ত মাকে বাঁচাতে ছেলে ইনজেকশন খুঁজে হয়রান!ফরিদপুরে গায়ে পচনধরা রোগীকে বাঁশ ঝাড়ে ফেলে দিলো স্বজনরা, উদ্ধারে পুলিশলকডাউনে বিয়ের আয়োজন করায় বর ও কনের পরিবারকে জরিমানাশাহজাদপুরে বইয়ের ভেতরে ৯০০ পিস ইয়াবা ও টাকাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতারত্রিশালে ভ্রাম্যমান আদালতের মোবাইল কোর্ট পরিচালনাঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের সংস্কার কাজে মাটির ব্যবহার! কক্সবাজারে টানা দুই দিনের ভারি বর্ষণে বন্যা ও পাহাড় ধসে ১৭ জনের মৃত্যু

  • আজ বৃহস্পতিবার, ১৪ শ্রাবণ, ১৪২৮ ৷ ২৯ জুলাই, ২০২১ ৷

ভোররাতে শিক্ষক-শ্রমিকদের লাঠিপেটা করে উঠিয়ে দিলো পুলিশ

police
❏ সোমবার, ডিসেম্বর ৭, ২০২০ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক- শ্রমিকদের সম্মানজনক ক্ষতিপূরণ দেওয়াসহ কয়েকটি দাবিতে রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আন্দোলনরত শিক্ষক ও শ্রমিকদের উঠিয়ে দিয়েছে পুলিশ।

আজ সোমবার (০৭ ডিসেম্বর) ভোররাত সাড়ে তিনটা থেকে চারটার দিকে তাদের উঠিয়ে দেওয়া হয়। এ সময় ঘুমন্ত শিক্ষক ও শ্রমিকদের লাঠিপেটা করা হয় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ বিষয়ে শাহবাগ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) কামাল উদ্দীন মুন্সী বলেন, ‘কর্তৃপক্ষের নির্দেশে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে থেকে আন্দোলনরত ব্যক্তিদের সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। তবে এ ঘটনায় কেউ গ্রেপ্তার হয়নি।’

এর আগে, জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে গত ২২ দিন ধরে আন্দোলন করে আসছিল বাংলাদেশ স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা শিক্ষক সমিতি। তারা স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসাকে জাতীয়করণের দাবিতে এই আন্দোলন করে আসছিল।

আন্দোলনকারীদের মধ্যে ছিলেন নীলফামারীর একটি স্বতন্ত্র এবতেদিয়া মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক হাফিজুল ইসলাম। তিনি জানান, ভোরের দিকে হঠাৎ বাঁশির শব্দ ও চিৎকারে ঘুম ভেঙে যায়। কিছু বুঝে ওঠার আগেই পুলিশের লাঠির আঘাত লাগে কপাল ও পায়ে।

কান্নায় ভেঙে পড়ে তিনি বলেন, ‘২২ বছরের চাকরিজীবনে বিনাবেতনে অসংখ্য শিক্ষার্থীকে পড়াশোনা করিয়েছি। এই তার প্রতিদান। বাড়িতে গিয়ে পুলিশের এই অত্যাচারের কথা বলতেও পারব না। এ বড় লজ্জা।’

কামাল মৃধা নামের এক শ্রমিক বলেন, পুলিশ হঠাৎ ঘুমন্ত শ্রমিকদের ওপর হামলা চালায়। ঘুমন্ত শ্রমিকদের কাউকে কাউকে লাথিও মারে তারা।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন