পথচারীদের বিনোদনের খোরাক পাখি ‘হ্যাপি’

১২:৩৭ অপরাহ্ন | বুধবার, ডিসেম্বর ৯, ২০২০ খুলনা
পাখি

মতিন রহমান, মাগুরা সংবাদদাতা: ‘কি সুন্দর এক গানের পাখি, মন নিয়ে সে খেলা করে’ গানের ভাষায় ভালোবাসার মানুষটিকে পাখি হিসেবে বোঝানো হলেও এটি বাস্তবিক অর্থে একটি পোষা পাখি। হ্যা এটা একটা শালিক পাখি। নাম তার হ্যাপি। কেউবা আবার আদর করে তাকে সাথী বলেও ডাকে।

৮ মাস আগে বাগান থেকে কুড়িয়ে পাওয়া এই পাখিটি এখন দিব্যি পোষ মানা হয়েছে। জানা গেছে, মাগুরা সদরের শত্রুজিৎপুর বাজারে বাসস্টান্ডের পাশের একটি ডায়গানোস্টিক সেন্টারের মালিক পাখিটাকে পালন করেন।

পাখিটি আদর আল্লাদে মন জয় করেছে বাজারের সকল দোকানদারসহ পথচারীদের। সবাই বলছেন পাখিটা তাদের বিনোদনের খোরাক এবং তাদের বড্ড আনন্দ দেয় সে।

কখনো শীষ দেয় আবার কখনোবা গানের পাগল সে। মোবাইলে বা সাউন্ড বক্সে গান বাজলেই হ্যাপি ছুটে যায় সেখানে। পাখিটার বিষয়ে বাজারের দোকান ব্যাবসায়ী এবং পথচারীরা জানায়, পাখিটা প্রতিদিন তাদের আনন্দ বিনোদন দিয়ে থাকে।

চারিদিকে এখন শীতের আমেজ, সরিষা ফুলের বাহার, উড়ন্ত পাখিটা যেনো ভুলে গিয়েছে প্রকৃতির মায়ায় ডানা মেলে উড়ে যেতে। একঝাঁক সঙ্গী ছেড়ে এই মানব সঙ্গীকেই বেছে নিয়েছে সে। তার মনটাকে যেনো বেধে রেখেছে এক সপ্ন মায়ায়। তাইতো উড়ন্ত যৌবনা পাখিটা যেনো মানবের মায়ায় ও প্রেমের জালে বন্দী হয়েই পড়ে আছে বাজারের কোণে।