মামুনুলদের ‌‌’সহযোগিতা’: খালেদা-তারেক-ফখরুলের বিরুদ্ধে করা মামলা খারিজ

◷ ২:৫৯ অপরাহ্ন ৷ বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১০, ২০২০ জাতীয়
khaleda-tarek

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- ভাস্কর্যবিরোধী বক্তব্যে সহযোগিতা করার অভিযোগে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও তার ছেলে দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান এবং মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বিরুদ্ধে করা মানহানি মামলা খারিজ করে দিয়েছেন আদালত।

একই সঙ্গে হেফাজত ইসলামের ভারপ্রাপ্ত আমির জুনায়েদ আহমেদ বাবুনগরী, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মুহাম্মদ মামুনুল হক ও ইসলামী শাসনতন্ত্রের সৈয়দ ফয়জুল করিমের বিরুদ্ধে করা মামলাও খারিজ করে দেয়া হয়েছে।

মামলা গ্রহণ করার মতো কোনো উপাদান না থাকায় বৃহস্পতিবার (১০ ডিসেম্বর) ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম সত্যব্রত শিকদার এ আদেশ দেন। এর আগে বুধবার (৯ ডিসেম্বর) ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম সত্যব্রত শিকদারের আদালতে এ মামলা করেন জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এ বি সিদ্দিকী।

এরআগে, বুধবার (৯ ডিসেম্বর) জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এবি সিদ্দিকী বাদী হয়ে এই মামলা দায়ের করেন। আদালত বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করে আদেশের জন্য বৃহস্পতিবার দিন ধার্য করেন।

ভাস্কর্য নিয়ে হেফাজত নেতাদের বিভিন্ন বক্তব্যকে বক্তব্যকে মানহানিকর বলে মামলার আবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। এতে আরও বলা হয়েছে, মৌলবাদী গোষ্ঠীকে বিভিন্নভাবে সহযোগিতা ও জোটগত রাজনীতির মাধ্যমে পৃষ্ঠপোষকতা দিয়ে আসছেন খালেদা জিয়া, তারেক রহমান ও মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

উল্লেখ্য, এর আগে একই ঘটনায় সোমবার (৭ ডিসেম্বর) হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির মোহাম্মদ জোনায়েদ ওরফে জুনায়েদ বাবুনগরী, যুগ্ম মহাসিচব মাওলানা মুহাম্মদ মামুনুল হক ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর নায়েবে আমির চরমোনাই পীর সৈয়দ ফয়জুল করীমের বিরুদ্ধে করা রাষ্ট্রদ্রোহের দুটি মামলা করেন বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট আবদুল মালেক ওরফে মশিউর মালেক এবং মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল।

ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সত্যব্রত শিকদারের আদালত মামলা দুটি গ্রহণ করে পিবিআইকে অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত করে আগামী ৭ জানুয়ারি প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন।