এবার ইসরাইলের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপন করছে মরক্কো

◷ ৬:৫৯ অপরাহ্ন ৷ শুক্রবার, ডিসেম্বর ১১, ২০২০ আন্তর্জাতিক
israel

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থতায় ইসরাইলের সাথে সম্পর্ক স্বাভাবিক করা আরব দেশগুলোর তালিকায় এবার যোগ দিতে যাচ্ছে মরক্কো। গত আগস্টের পর থেকে মরক্কো হলো চতুর্থ রাষ্ট্র, যারা ইসরাইলের সাথে সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে চুক্তিতে এলো।

এর আগে সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন এবং সুদান এ ধরণের চুক্তিতে উপনীত হয়েছে। অন্যদিকে মিসর ও জর্ডানের পর মরক্কো হলো আরব লীগের ষষ্ঠ সদস্য, যারা ইসরাইলের সাথে সম্পর্ক স্বাভাবিক করলো।

বৃহস্পতিবার (১০ ডিসেম্বর) মার্কিন প্রেসিডেন্ট এক টুইট বার্তায় ঘোষণা দেন, ‘ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে সম্মত হয়েছে মরক্কো। ’

ট্রাম্প বলেন, ‘আরেকটি যুগান্তকারী অর্জন হলে। আমাদরে দুই মহান বন্ধু ইসরায়েল ও কিংডম অব মরক্কো পূর্ণ কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনে সম্মত হয়েছে। মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি অর্জনের জন্য এটি বিশাল অগ্রগতি।’

চুক্তি অনুযায়ী, ২০০০ সালে তেল আবিব ও রাবাতে বন্ধ করে দেয়া দুই দেশের লিয়াজো অফিসগুলো পুনরায় চালু করা হবে।

কর্মকর্তারা বলছেন, মরক্কো ইসরায়েলিদের জন্য সরাসরি বিমান চলাচলের অনুমোদন দেবে। ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনইয়ামিন নেতানিয়াহু চুক্তিকে ঐতিহাসিক হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন। টেলিভিশনে প্রচারিত এক ভাষণে তিনি মরক্কোর বাদশাহকে ধন্যবাদ জানান।

অন্যদিকে, মরক্কোর বাদশাহর প্রাসাদ থেকে দেয়া বিবৃতিতে চুক্তির বিষয়টি নিশ্চিত করে বলা হয়, টেলিফোনে মিস্টার ট্রাম্পের সাথে আলোচনার সময় সম্ভাব্য কম সময়ের মধ্যে ইসরায়েলের সাথে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনে বাদশাহ সম্মতি দিয়েছেন।

মিসর, সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং বাহরাইন এই তিন আরব দেশ মরক্কো এবং ইসরায়েলের মধ্যকার চুক্তিকে স্বাগত জানিয়েছে।

তবে ফিলিস্তিনি কর্মকর্তারা চুক্তির সমালোচনা করে বলেছেন, এই পদক্ষেপ তাদের অধিকার হরণে ইসরায়েলকে আরও উৎসাহিত করবে।