• আজ রবিবার, ১৭ শ্রাবণ, ১৪২৮ ৷ ১ আগস্ট, ২০২১ ৷

‘বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙচুর করে সব মাদ্রাসাছাত্রকে অপমান করছে মামুনুলরা’


❏ শনিবার, ডিসেম্বর ১২, ২০২০ আলোচিত বাংলাদেশ

সময়ের কন্ঠস্বর ডেস্ক: বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নিয়ে অপব্যাখ্যা করে মানুষকে বিভ্রান্ত করছে একটি মহল। মাদ্রাসাছাত্রদের দিয়ে ভাস্কর্য ভাঙচুর করে সারাদেশের সব মাদ্রাসাছাত্রকে অপমান করছে মামুনুল হকরা।

শনিবার (১২ ডিসেম্বর) রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অনুষ্ঠিত এক মানববন্ধনে এমন অভিযোগ করেন ইউনাইটেড ইসলামিক পার্টির সভাপতি মাওলানা মো. ইসমাইল হোসাইন।

মাওলানা মো. ইসমাইল হোসাইন বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে আমরা স্বাধীন বাংলাদেশ পেয়েছি। বঙ্গবন্ধুর পূর্বপুরুষরা ইরাক থেকে ইসলাম প্রচারের জন্য এ দেশে এসেছিলেন। সেই ধারাবাহিকতায় বঙ্গবন্ধুও ইসলামের জন্য অনেক কাজ করে গেছেন। তার হাত দিয়েই প্রতিষ্ঠিত হয়েছে ‘ইসলামিক ফাউন্ডেশন’।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশে ইসলাম ও আলেম সমাজের জন্য যা কিছু করেছেন, অন্য কোনো সরকার তা করে নাই। বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নির্দেশে দেশের প্রতিটি জেলা-উপজেলায় মডেল মসজিদ নির্মাণ হচ্ছে। দেশে প্রায় এক লাখ মসজিদভিত্তিক মকতব প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। যেখানে প্রত্যেক আলেম সরকারি ভাতা পাচ্ছেন সাড়ে চার হাজার টাকারও বেশি।

মাওলানা ইসমাইল আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা আমাদের দীর্ঘ সময়ের দাবি ‘কওমি মাদ্রাসার স্বীকৃতি’ দিয়ে তা পূরণ করেছেন। বঙ্গবন্ধুকন্যা ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেছেন।

মাওলানা ইসমাইল বলেন, বাংলাদেশ একটা গণতান্ত্রিক দেশ। এ দেশ সংবিধান অনুযায়ী চলে। আলেমদের অবশ্যই দেশ ও দেশের মানুষের কল্যাণের কথা চিন্তা করতে হবে। বেশ কিছুদিন ধরেই বাংলাদেশে ভাস্কর্য বিষয়টি নিয়ে একটি মহল অপব্যাখ্যা ও উত্তেজনার সৃষ্টি করেছে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশে ভাস্কর্য নির্মাণ কোনো নতুন বিষয় নয়। বাংলাদেশ ঈশাখাঁর আমলের ভাস্কর্য রয়েছে। সারাদেশে মুক্তিযুদ্ধের বিভিন্ন ভাস্কর্য রয়েছে। মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানীসহ আরও বিভিন্ন ভাস্কর্য আছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশের অবিসংবাদিত নেতা, জাতির পিতা। তাই জাতির পিতার ভাস্কর্যের চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অন্য কোনো ভাস্কর্য হতে পারে না।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন