করোনা মোকাবেলায় বাংলাদেশ বিশ্বে উদাহরণ সৃষ্টি করেছে: তথ্যমন্ত্রী

◷ ১০:৪১ অপরাহ্ন ৷ শনিবার, ডিসেম্বর ১৯, ২০২০ চট্টগ্রাম
hasan

জে.জাহেদ, চট্টগ্রাম প্রতিনিধিঃ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, করোনা নিয়ে অনেকেই শঙ্কা-আশংকার কথা বলেছিল, বলেছিল করোনায় দেশের রাস্তাঘাটে লাশ পড়ে থাকবে, লক্ষ লক্ষ মানুষ অনাহারে থাকবে, তাদের সেই শঙ্কা আশঙ্কা ভুল প্রমাণিত হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে করোনা মোকাবেলায় বাংলাদেশ বিশ্বে উদাহরণ সৃষ্টি করেছে।

শনিবার (১৯ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার পদুয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে ভার্চুয়ালি সংযুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, করোনায় সমগ্র পৃথিবী থমকে গেলেও বাংলাদেশ থমকে যায়নি। করোনা মহামারির মধ্যেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে গেছে। করোনার মধ্যে পৃথিবীর মাত্র ২২টি দেশে পজিটিভ জিডিপি গ্রোথ হয়েছে, তারমধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান উপরের দিকে।

‘প্রধানমন্ত্রী শুধু অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছে তা নয়, করোনা মহামারি মোকাবেলা করার ক্ষেত্রেও তিনি সফল হয়েছেন। করোনা মহামারিতেও বাংলাদেশে মৃত্যুর হার বিশ্বের অনেক দেশের চেয়ে এমনকি পাকিস্তানের চেয়েও অনেক কম। এটির কারণ হচ্ছে প্রধানমন্ত্রী করোনা মহামারীতেও সঠিকভাবে নেতৃত্ব দিতে সক্ষম হয়েছেন।’

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, যখন করোনার কারণে লকডাউন ঘোষণা করা হলো, কার্যত দেশ স্থবির হয়ে পড়েছিল তখন সরকারী-বেসরকারীভাবে এবং আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকেও দলের নেতাকর্মীরা প্রতিটি জনগণের পাশে দাঁড়িয়েছে, জনগণকে খাদ্য সহায়তা দিয়েছে। দলের পাশাপাশি রাঙ্গুনিয়ায় আমাদের পারিবারিক প্রতিষ্ঠান এনএনকে ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকেও হাজার হাজার মানুষকে খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়েছিল। রাঙ্গুনিয়াসহ সারাদেশে কোন মানুষ অনাহারে মৃত্যুবরণ করেনি। এটি প্রধানমন্ত্রীর সঠিক নেতৃত্বের কারণে সম্ভবপর হয়েছে।

দেশ উন্নয়নে বদলে গেছে জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, আজ থেকে ১২ বছর আগে যেই ছেলেটি বিদেশ গেছে, সে যখন ১২ বছর পরে দেশে আসে সে তার গ্রাম রাস্তাঘাট চিনতে পারেনা। এই যে পরিবর্তন এটি জননেত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বের কারণে সম্ভব হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর এই নেতৃত্ব এখন বিশ্বব্যাপী প্রশংসিত, তাই ক্রমাগতভাবে আওয়ামী লীগ যদি দেশ পরিচালনার দায়িত্ব পায়, এই উন্নয়ন অব্যাহত থাকবে। এবং স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তির যে আস্ফালন এটিকে দমন করতে পারবে।

পদুয়া রাজারহাট হাসপাতাল মাঠে আয়োজিত সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি চেয়ারম্যান গোলাম কবির তালুকদার।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম তালুকদার বাদশার সঞ্চালনায় সম্মেলনে স্বাগত বক্তব্য দেন সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক এরশাদ মাহমুদ।

এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন, চট্টগ্রাম উত্তরজেলা আওয়ামী লীগ নেতা উপজেলা চেয়ারম্যান স্বজন কুমার তালুকদার, রাঙ্গুনিয়া পৌরসভার মেয়র শাহজাহান সিকদার, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মুহাম্মদ আলী শাহ, চেয়ারম্যান ইদ্রিছ আজগর, বেদারুল আলম চৌধুরী বেদার, আবুল কাশেম চিশতি, নজরুল ইসলাম তালুকদার, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান এডভোকেট আয়শা আকতার, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা ইঞ্জিনিয়ার শামসুল আলম তালুকদার, আবু জাফর চেয়ারম্যান, ইকবাল হোসেন, আক্তার হোসেন খাঁন, আরিফুল ইসলাম চৌধুরী, জাহেদুল আলম চৌধুরী আইয়ুব, মো. আবু তাহের, এমরুল করিম রাশেদ প্রমুখ।

সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে সর্বসম্মতিক্রমে গোলাম কবির তালুকদারকে সভাপতি এবং বদিউজ্জামান বদিকে সাধারণ সম্পাদক করে পদুয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আংশিক কমিটি ঘোষণা করা হয়।