সংবাদ শিরোনাম

কক্সবাজারে নারী মাদক ব্যবসায়ীর অর্থ লুট, এসআইসহ ৩ পুলিশ বরখাস্তবয়স ১০০ ছুঁইছুঁই, দুলি খাতুনের ভাগ্যে কবে জুটবে বয়স্ক ভাতা?ওয়ান শুটারগান ও গুলিসহ আনোয়ারার গেট্টু নাছির গ্রেপ্তারপ্রয়োজনে আরও ভ্যাকসিন কেনা হবে: প্রধানমন্ত্রীটাঙ্গাইলে যৌন হয়রানি ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে প্রধান শিক্ষক বরখাস্তজামালপুরে বাগানে মিলল তরুণীর ঝুলন্ত লাশ, মৃত্যু নিয়ে রহস্যসুবর্ণচরে ধর্ষণের শিকার হয়ে স্কুলছাত্রীর আত্নহত্যাভোটের অধিকার আদায়ে প্রয়োজনে আন্দোলনে নামবে জাতীয় পার্টি: বাবলুরাজশাহীতে বিএনপির সমাবেশে যেতে তাবিথকে ‘বাধা’গাজীপুরে সকল ট্রেনের যাত্রাবিরতির দাবিতে অবস্থান ধর্মঘট

  • আজ ১৭ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

করোনা টিকা প্রদানেও সরকার দুর্নীতির আশ্রয় নিয়েছে: ফখরুল

৪:১৯ অপরাহ্ন | শনিবার, ডিসেম্বর ২৬, ২০২০ রংপুর
fokrul

কামরুল হাসান, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি- বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, করোনা টিকা প্রদানেও সরকার দুর্নীতির আশ্রয় নিয়েছে। সরকারের একজন উপদেষ্টাকে চুক্তি প্রদান করা হয়েছে। বাংলাদেশে সরকারের নিয়ম অনুযায়ী চুরি করা হচ্ছে।

শনিবার দুপুরে ঠাকুরগাঁওয়ের কালীবাড়িস্থ নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগ কৌশল পরিবর্তন করে বিভিন্ন রায়ের মধ্য দিয়ে আদালতকে ব্যবহার করছে। নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকার বাতিল করে দিয়ে একদলীয় সরকার প্রতিষ্ঠা করে তারা ক্ষমতায় থাকার বিষয়টি পাকাপোক্ত করেছে।

তিনি বলেন, আমরা জনগণের ভোটাধিকার চাই। সে কারণে ৩০ ডিসেম্বর জনগণের ভোটাধিকার হত্যা দিবস পালন করে আসছি। কারণ সারা বিশ্বই জানে ২৯ ডিসেম্বর রাতে আওয়ামী লীগ ভোটডাকাতি করে সব নিয়ে গেছে। জনগণকে ভোটাধিকার থেকে বঞ্চিত করে তারা একদলীয় শাসন ব্যবস্থার লক্ষ্য পূরণ করেছে।

ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগ জনগণের সম্মুখীন হতে পারে না। গণতন্ত্রকে তারা ভয় পায়। অবাধ, সুষ্ঠু নির্বাচন করতে ভয় পায়, তারা বিরোধীদলীয় নেতানেত্রীর বিরুদ্ধে মামলা-মোকদ্দমা দিয়ে রাজনৈতিক ফায়দা লুটতে চায়। ক্ষমতায় টিকে থাকতে আওয়ামী লীগের সেই গ্রাম্য মোড়লের মতো আবির্ভাব হয়েছে। তাদের কাজই হচ্ছে জনগণকে অস্থির করে রাখা।

চলমান পৌরসভা নির্বাচন নিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, নির্বাচন কমিশন যতদিন আছে ও আওয়ামী লীগ সরকার যতদিন আছে, কোনো নির্বাচন সঠিকভাবে হবে না। এরপরও আমরা নির্বাচনে যাবো। কারণ বিএনপি একটি গণতান্ত্রিক দল। নির্বাচনে যাওয়ার অর্থ জনগনের কাছাকাছি গিয়ে কথা বলা। আমরা বিশ্বাস করি এই নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতার পরিবর্তন হবে।

অন্যদের মধ্যে জেলা বিএনপির সভাপতি তৈমুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মির্জা ফয়সল আমীন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবু হাসান জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ওবাইদ্দুল্লা মাসুদ, দপ্তর সম্পাদাদক মামুন অর রশিদ মামুন, চেয়ারমান মো. আব্দুল হান্নান হান্নুসহ জেলা বিএনপির নেতারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।