পঞ্চগড়ে পৌরসভা নির্বাচনে রিটার্নিং কর্মকর্তার গাড়ী ভাঙচুর

৩:৪৯ অপরাহ্ন | সোমবার, ডিসেম্বর ২৮, ২০২০ রংপুর
Panchagar news

নাজমুস সাকিব মুন, পঞ্চগড় প্রতিনিধিঃ পঞ্চগড় পৌরসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ভোট কেন্দ্রে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া, ভোট গ্রহণ স্থগিত এবং নির্বাচন ও রিটার্নিং কর্মকর্তার গাড়ী ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে।

আজ বেলা ১২ টার দিকে ৫ নং ওয়ার্ডের তুলারডাঙ্গা কেন্দ্রে এই ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এঘটনায় সাময়িক সময় ভোট গ্রহণ বন্ধ ছিলো। পরে অতিরিক্ত পুলিশ ও বিজিবি গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

আ. লীগ তথা নৌকা সমর্থিতদের দাবি, এঘটনায় তাদের ১০ কর্মী আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে দুইজনকে অবস্থার অবনতি হওয়ায় রংপুর মেডিকেল কলেজ (রমেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অন্যরা পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এদিকে, একই সময়ে পৌরসভার কালেক্টর স্কুল কেন্দ্রে নির্বাচন ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মোঃ আলমগীরের সরকারি গাড়ী ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে।

তবে কারা হামলা করেছে এ বিষয়ে নিশ্চিত হতে পারেননি বলে জানিয়েছেন নির্বাচন ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মোঃ আলমগীর। তিনি বলেন, ‘আমি গাড়ীর সামনে বসে থাকাকালীন পিছনে হামলা করা হয়েছে।’

ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, ‘৫ নং ওয়ার্ডের তুলারডাঙা কেন্দ্র বিশৃংখলা হয়েছিলো। পুলিশ ও বিজিবি গিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করেছে। ভোট গ্রহণও চলছে। আর হতাহতের বিষয়ে এখন পর্যন্ত কোন অভিযোগ পাইনি।

নির্বাচন কর্মকর্তা আরো জানিয়েছে, পৌরসভার ১৫ টি কেন্দ্রের ৯৭ টি বুথে ভোটগ্রহণ চলছে। ভোটার রয়েছেন ৩৫ হাজার ১১ জন। প্রতি কেন্দ্রে ৫ জন পুলিশ ও ১৫ জন আনসার সদস্য দায়িত্ব পালন করছেন। দুই প্লাটুন বিজিবিও মাঠে রয়েছেন। নির্বাচনে পুলিশের ৩টি, র‌্যাবের ৩টি মোবাইল টিম কাজ করছেন। ৯ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও একজন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করছেন।