নবাবগঞ্জে ঐতিহ্যবাহী ঘোড়া দৌড় প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

horse

হিলি প্রতিনিধিঃ হারিয়ে যাওয়া গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী খেলাকে পুনরুদ্ধার করতে ও মাদকের থাবা থেকে যুবসমাজকে দুরে রাখতে মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষ্যে দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে অনুষ্ঠিত হলো ঘোড়া দৌড় প্রতিযোগীতা। গ্রামীন ঐতিহ্যবাহী খেলাকে ঘিরে গ্রামে তৈরি হয়েছে উৎসবের আমেজ, খেলা দেখতে পেরে খুশি দর্শকরা।

নবাবগঞ্জ উপজেলার ইটাখুর বববাড়িয়া গ্রামবাসীর আয়োজনে ইটাখুর মাঠে গতকাল বিকেলে ঘোড় দৌড় প্রতিযোগীতার আয়োজন করা হয়। জয়পুরহাট, গাইবান্ধা, রংপুর, দিনাজপুর, পঞ্চগড়, ঠাকুরগাওসহ বিভিন্ন এলাকার প্রতিযোগী অংশগ্রহন করেন।

৩টি গ্রুপে মোট ২৭টি ঘোড়া অংশগ্রহণ করে, এছাড়াও ছিল বাবা ও মেয়ের প্রতিযোগীতা, ক গ্রুপে বিজয়ী হন দিনাজপুরের বাহাদুড়, খ গ্রুপে ঘোড়াঘাটের জহুরুল ও গ গ্রুপে গাইবান্ধার আতাউর, খেলা শেষে বিজয়াদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

খেলা দেখতে আসা দর্শকরা জানান, ঘোড়া দৌড় প্রতিযোগীতা গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী খেলা, আগে বিভিন্ন স্থানে খেলাগুলো দেখা যেতো, কিন্তু এখন সচরাচর আর দেখা যায়না। দীর্ঘদিন পরে আবারও এমন খেলার আয়োজন করায় খুশি দর্শকরা। স্থানীয়রাসহ দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে এই খেলা দেখতে আসেন দর্শনার্থীরা।

এই খেলাকে ঘিরে এই অ লে পরিবারগুলোতে একটা উৎসবের আমেজ তৈরি হয় গ্রামের প্রতিটি বাড়িতে আত্মীয় স্বজনরা আসেন খেলা দেখতে। অনেকে জীবনে প্রথমবারের মতো খেলা দেখতে এসে এমন খেলা দেখতে পেয়ে অনেক খুশি দর্শকরা, দারুনভাবে খেলা উপভোগ করছেন তারা।

বিভিন্ন স্থান থেকে খেলতে আসা খেলোয়াররা জানান, মানুষকে আনন্দ বিনোদন দেওয়ার উদ্দেশ্যেই এই ঘোড়া খেলা দেখিয়ে থাকেন প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহনকারীরা। অত্র অঞ্চলের যেখানেই এই খেলা হয়ে থাকে আমরা সেখানে অংশগ্রহণ করে থাকি।

খেলার আয়োজক কমিটির সভাপতি আব্দুল জলিল জানান, গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী খেলাটি আজ হারিয়ে যেতে বসেছে, হারিয়ে যাওয়া খেলাকে পুনরুদ্ধার করতে ও মাদক থেকে যুবসমাজকে দুরে রাখতে এই প্রতিযোগীতার আয়োজন।

উপজেলার ৬নং ভাদুরিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আসমান জামিল জানান, গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী খেলাকে ধরে রাখতে সবধরনের সহযোগীতা অব্যাহত থাকবে। যুবকরা যেন মাদকের দিকে ধাবিত না হয় সেই জন্য তারা সব ধরনের খেলার আয়োজন করবেন।

◷ ৩:৫৫ অপরাহ্ন ৷ মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ২৯, ২০২০ রংপুর