সংবাদ শিরোনাম

নোয়াখালীতে আ’লীগ সভাপতিকে কুপিয়ে জখমসিটি ব্যাংকের স্থানান্তরিত গুলশান শাখার উদ্বোধনমেয়াদ উত্তীর্ণ বিএনপির কমিটি বাতিলের দাবিতে জামালপুরে ঝাড়ু হাতে বিক্ষোভচট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করবে না সরকার: কাদেররংপুরে ছাত্রীনিবাস থেকে কলেজ ছাত্রীর মরদেহ উদ্ধারকক্সবাজারে ভুয়া ফেসবুক আইডি খুলে অপপ্রচার, চলছে ভয়ংকর ব্ল্যাকমেইলওশাহজালালে জাল ভিসায় যুক্তরাজ্য যাওয়ার চেষ্টা, ভারতীয় নাগরিক আটক৪-৫ দিনের মধ্যে দেশের সব জেলায় ভ্যাকসিন যাবে: পাপনব্রাজিলে প্লেন বিধ্বস্ত, সভাপতিসহ ৪ ফুটবলার নিহতকথায় নয় কাজে দক্ষ হতে হবে: কুষ্টিয়ার এসপিকে হাইকোর্ট

  • আজ ১১ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

জাতীয় পার্টি লাইফ সাপোর্টে চলে গেছে: রংপুরে বিদিশা

◷ ১০:২৯ অপরাহ্ন ৷ শুক্রবার, জানুয়ারী ১, ২০২১ রংপুর
bidisha

সাইফুল ইসলাম মুকুল, রংপুর ব্যুরোঃ জাতীয় পার্টির (জাপা) প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রয়াত হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের সাবেক স্ত্রী বিদিশা এরশাদ বলেছেন, জাতীয় পার্টি লাইফ সাপোর্টে চলে গেছে। এখন যে জাতীয় পার্টি আছে সেটি এরশাদের জাতীয় পার্টি না।

জাতীয় পার্টির ৩৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে রংপুরে এসে শুক্রবার দুপুরে নগরীর দর্শনা মোড়ের পল্লী নিবাসে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময় তিনি বলেন, জাতীয় পার্টি লাইফ সাপোর্টে চলে গেছে। জাতীয় পার্টিকে পুরনো রূপে ফিরিয়ে আনতে আমি এরিক এরশাদকে নিয়ে টেকনাফ থেকে তেতুলিয়া, রূপসা থেকে পাথুরিয়া যাব। দলকে সুসংগঠিত করতে সারাদেশে জাতীয় পার্টির সাবেক ও বর্তমান নেতৃবৃন্দদের সঙ্গে যোগাযোগসহ তাদের ডোর-টু-ডোর যাব।’

তিনি আরো বলেন, যে কোনো দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আসলে সেই দলের নেতাকর্মীরা দলের প্রধানদের কবর জিয়ারত করতে যান। অন্যরা এখানে কে কী করছেন আমি জানি না। এরিকের ইচ্ছা অনুযায়ী আমরা রংপুরে এসে সাবেক রাষ্ট্রপতি জাপা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের কবর জিয়ারত করলাম। আমি যুব ও তৃণমূলের মানুষদের দলে আনতে কাজ করব। এতে করে জাতীয় পার্টিতে স্বঘোষিত চেয়ারম্যান ঘোষণা দেয়ার আর জায়গা থাকবে না। ভবিষ্যতে পার্টিতে আর যেন স্বঘোষিত চেয়ারম্যান হতে না পারে সেদিকে খেয়াল রাখব।’

এ সময় এরিক এরশাদ কেঁদে কেঁদে বলেন, আজ জাতীয় পার্টির ৩৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আমরা রংপুরে এসেছি। বাবার কবর জিয়ারত করেছি। আপনারা সবাই আমার বাবার জন্য দোয়া করবেন। মহান আল্লাহ তায়ালা যেন আমার বাবাকে বেহেস্ত নসিব করেন। এর আগে এরশাদের কবর জিয়ারত শেষে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন বিদিশা ও এরিক।

এরশাদের কবর জিয়ারত শেষে দুজনই আবেগাল্পুত হয়ে কেঁদে ফেলেন। এ সময় এরিক তার বাবার কবরের নামফলক মুছে পরিষ্কার করে কয়েক মিনিট নীরবে দাঁড়িয়ে চোখের পানি ফেলেন। এরপর এরশাদের পল্লী নিবাস বাসভবনে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কেক কাটেন তারা।

এ সময় হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ ট্রাস্টের চেয়ারম্যান জাপার সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী মামুনুর রশীদ, সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য জাফর আহমেদ সিদ্দিকী, হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ ট্রাস্টের পরিচালক অ্যাডভোকেট রুবায়েত হাসান, প্রেস সচিব এএসএম সায়েম সাকলায়েম উপস্থিত ছিলেন।