সংবাদ শিরোনাম

আড়াইহাজারে ১২ হাজার কেজি নিষিদ্ধ পলিথিন উদ্ধার,  চালক ও হেলপার আটকভূঞাপুরে খানাখন্দে ভরা ৮০০ মিটার সড়ক, দুর্ভোগে কয়েক গ্রামের লাখো মানুষকোটালীপাড়ায় ফের অগ্নিকান্ড, ৬টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুড়ে ছাইজামালপুরে পৃথক দুর্ঘটনায় দুইজন নিহত টাঙ্গাইলে বাসের ধাক্কায় মাইক্রোবাসের ৮ যাত্রী আহতইশরাকের খালাসের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আপিল করল দুদকভারত কিছু ভ্যাকসিন বাংলাদেশকে উপহার দেবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রীওয়ালটন ল্যাপটপ কিনে ১০০% ক্যাশব্যাক পেলেন ফ্রিল্যান্সার নাজমুলসিরাজগঞ্জে কাউন্সিলর হত্যা মামলায় আটক-১টাঙ্গাইলে কাউন্সিলর প্রার্থীর নির্বাচনী কেন্দ্র পুড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ

  • আজ ৪ঠা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

মির্জা ফখরুলের উদ্দেশে যা বললেন তথ্যমন্ত্রী

◷ ৯:৩৮ অপরাহ্ন ৷ বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী ৭, ২০২১ জাতীয়
hasan

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ বৃহত্তর ঐক্য গড়ে তোলার দিকে মন না দিয়ে নিজ দলের ঐক্য ধরে রাখতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ।

বৃহস্পতিবার (০৭ জানুয়ারি) দুপুরে সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে ‘২০২১ সালেই বিএনপি বৃহত্তর ঐক্য গড়ে গণঅভ্যুত্থানে সরকারপতন ঘটাবে’ বলে বিএনপি মহাসচিবের মন্তব্যের জবাবে তিনি একথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, আমি মির্জা ফখরুল সাহেবকে অনুরোধ জানাব, অতীতেও তারা বৃহত্তর আন্দোলন করেছেন কিন্তু তাতে তারা ফল পাননি বরং নিজের দলের ঐক্যটাকে ধরে রাখার চেষ্টা করাই শ্রেয়।

হাছান মাহমুদ বলেন, বৃহত্তর ঐক্য তারা (বিএনপি) গত নির্বাচনের আগেও করেছিল। ডান, বাম, অতি বাম, অতি ডান, প্রতিক্রিয়াশীল এবং ধর্মান্ধ গোষ্ঠি সবাইকে এক করে ২০১৮ সালের নির্বাচনে তারা চেষ্টা করেছিল, সরকারের বিরুদ্ধে একটি বৃহত্তর ঐক্য গড়ে তুলতে। সেই ঐক্য কাচের গ্লাসের মতে ভেঙে গেছে। যেই দলগুলো একত্রিত হয়েছিল সেই দলগুলোর আভ্যন্তরীণ ঐক্যই নেই এবং বিএনপির ভেতরেই ঐক্য নেই।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, গত কিছুদিন ধরে যেভাবে একে-অপরের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করছেন এবং সামনের সারিতে বসা নিয়ে যেভাবে তারা মারামারি করেছেন রাজশাহীসহ বিভিন্ন জায়গায়, এতে তাদের দলের যে অনৈক্য সেটি বেরিয়ে এসেছে। প্রথমে দলের ঐক্য স্থাপন করা অ্যতন্ত জরুরি।

জামায়াতকে নিয়ে বিএনপির বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণার কঠোর সমালোচনা করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, সেই বিক্ষোভ কর্মসূচির সঙ্গে তাদের জোটসঙ্গী জামায়াত ইসলামী আছে, যারা বাংলাদেশের অভ্যুদয়ে বিরোধীতা করেছিলে দলগতভাবে। এমনকি মুক্তিযোদ্ধাদের বিরুদ্ধে অস্ত্র ধরেছিলে অর্থাৎ পাকিস্তানের পক্ষে লড়াই করেছিল। তাদেরকে সাথে নিয়ে ১০ জানুয়ারি বিক্ষোভ করা মানে তারা যে স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বে বিশ্বাস করে না, যেটি জনগণ বলে, সেটি তারা সত্য বলে শিকার করে নিল।

‘ভ্যাকসিন নিয়ে সরকার টালবাহানা করছে’ বিএনপির নেতা রিজভীর এমন মন্তব্যে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘একটি ভুল সংবাদের পরিপ্রেক্ষিতে করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে যে ধ্রুমজাল তৈরি হয়েছিল, সেটি ইতোমধ্যেই নিরসন হয়েছে। এরপরও একথাগুলো বলে বিএনপি জনগণের মধ্যে প্রথম থেকেই যে বিভ্রান্তি ছড়ানোর অপচেষ্টা চালিয়ে এসেছে, তা জিইয়ে রাখতে চায়।’ বাংলাদেশ চুক্তি অনুযায়ী যথাসময়েই এই ভ্যাকসিন পাবে, বলেন তিনি।

নোয়াখালীর আওয়ামী লীগ নেতা মির্জা কাদেরের বক্তব্য নিয়ে প্রশ্নের জবাবে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘মির্জা কাদের যে বক্তব্য রেখেছেন সেটির ব্যাখ্যাও তিনি দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, নোয়াখালীর আভ্যন্তরীণ রাজনীতির প্রেক্ষাপটেই তিনি কথা বলেছেন, সারাদেশের রাজনীতি নিয়ে নয়। আমি মনে করি, আমাদের দলের মধ্যে যে গণতন্ত্র আছে, যে কেউ তার অভিমত ব্যক্ত করতে পারে, মির্জা কাদেরের বক্তব্য সেটিরই বহিঃপ্রকাশ।’