সুবর্ণচরে মাদ্রাসার জমি দখলের চেষ্টা ও মারধরের প্রতিবাদে মানববন্ধন

◷ ১০:০৮ অপরাহ্ন ৷ সোমবার, জানুয়ারী ১১, ২০২১ চট্টগ্রাম
madrasa

মোঃ ইমাম উদ্দিন সুমন, নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ নোয়াখালীর সুবর্ণচরে যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে মাদ্রাসার ও এতিমখানা’র জমি দখলের চেষ্টা এবং মারধরের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে মাদ্রাসার শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী।

সোমবার (১১ জানুয়ারি) সকালে নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলার চরওয়াপদা ইউনিয়নের চরবৈশাখী গ্রামে জামিয়া ইসলামিয়া দারুল মাদ্রাসার সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে মাদ্রাসার মুহতামিম মুফতি আবুল খায়ের অভিযোগ করে বলেন, সোমবার ফজরের পর স্থানীয় আনছারুল হকের পুত্র সুবর্ণচর উপজেলা যুবলীগের সদস্য মো. নুর ইসলাম এবং স্থানীয় ইউপি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মফিজুরর রহমান আশিক, তাজুল ইসলাম, ফখরুল ইসলাম মাদ্রাসার জমি দখলের চেষ্টা করে এবং চাঁদা দাবি করে।

এসময় মাদ্রাসা কতৃপক্ষ চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানালে তারা মাদ্রাসারা জমি দখল করে এবং মাদ্রাসার সীমানা প্রাচীর ভেঙ্গে ফেলে। মাদ্রাসার মুহতামিম এসময় শিক্ষকদের নিয়ে বাঁধা দিলে তারা অকথ্য ভাষায় গালাগাল করে এবং মুহতামিমের স্ত্রী সন্তানকে মারধর করে।

এমন ন্যাক্কার জনক ঘটনার প্রতিবাদে ভুক্তভোগি শিক্ষক ও মাদ্রাসার নুরানি, হিফয ও কিতাব বিভাগের শিক্ষার্থীরাসহ মানববন্ধনে অংশ নেয় এলাকাবাসী।

এতে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, মুফতি আবুল খায়ের, মাও. মোস্তফা, মাও. সাহেদ, মাও. শহিদুল্লাহ, মাও. আব্দুর রসিদ প্রমুখ।

অভিযুকক্ত যুবলীগ নেতা নুর ইসলাম মারধরের বিষয়ে অস্বীকার করে বলেন, “মাদ্রাসার পাশে আমাদেে কিছু জায়গাজমি আছে এ নিয়ে দীর্ঘদিন যাবত ঝামেলা চলছে”।

চরজব্বার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জিয়াউল হক তালুকদার বলেন,”এ বিষয়ে কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে”।