• আজ মঙ্গলবার, ১২ শ্রাবণ, ১৪২৮ ৷ ২৭ জুলাই, ২০২১ ৷

‘ভারতের কাছ থেকে বেশি দামে টিকা কিনে লুটপাট উৎসবের প্রস্তুতি’

fokrul
❏ বুধবার, জানুয়ারী ১৩, ২০২১ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- ভারতের কাছ থেকে বেশি দামে টিকা কিনে লুটপাটের উৎসবের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বুধবার দুপুরে রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত এক প্রতিবাদ সমাবেশে তিনি এ মন্তব্য করেন।

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে এ সমাবেশের আয়োজন করে ঢাকা মহানগর বিএনপি।

দেশে কোনো আইনের শাসন নেই মন্তব্য করে মির্জা ফখরুল বলেন, এই সরকার চুরি এবং লুটপাট করে এদেশে একটি ডাকাতের শাসন ব্যবস্থা কায়েম করেছে। এই যে কোভিড-১৯ এত বড় একটি ভয়াবহ মহামারি, এই মহামারিতে আপনারা লুটপাট বন্ধ করেননি। আরো কী লুটপাট করবেন, সে জন্য ভ্যাকসিন আমদানির মাধ্যমে লুটপাটের নতুন ব্যবস্থা করছেন। যেখানে ভারত বিক্রি করছে ২ টাকা ৪০ পয়সা করে সেখানে আপনারা বিক্রি করছে ৫ টাকা করে। অর্থাৎ এই চুরির টাকা সব আপনারা নিয়ে যাবেন।

বর্তমান সরকার বিএনপি নেতা বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানকে ভয় পায় জানিয়ে ফখরুল বলেন, ‘এজন্য তারা বিভিন্ন সময় মিথ্যা মামলা দেয়। মিথ্যা মামলা দিয়ে গণতান্ত্রিক আন্দোলন দমন করা যাবে না। বাংলাদেশের মানুষ সংগ্রামী। তারা সংগ্রাম করে দেশে ফের গণতান্ত্রিক শাসন ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করবে।’

মির্জা ফখরুল বলেন, এই সরকার জনবিরোধী সরকার। এ সরকার জনগণের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে। তারা অত্যন্ত সুপরিকল্পিতভাবে বাংলাদেশের সকল প্রতিষ্ঠানকে ধ্বংস করে দিয়েছে। এই জন্য এই সরকারকে সরাতে হলে আমাদের সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। বাংলাদেশের সকল গণতান্ত্রিক-দেশপ্রেমিক মানুষ ঐক্যবদ্ধ হয়ে এই সরকারকে পরাজিত করতে হবে। সময় এসেছে রুখে দাঁড়ানোর, সময় এসেছে এই সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করার, সময় এসেছে অন্যায়ের বিরুদ্ধে, ন্যায়ের পক্ষে লড়াই করার। তিনি সবাইকে এই আন্দোলনে অংশগ্রহণের আহবান জানান।

ফখরুল বলেন, এ সরকার দেশের বিচার বিভাগকে শেষ করে দিয়েছে। বিচার বিভাগের কোনো স্বাধীনতা তারা রাখেনি। বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা সাজানো মামলা দিয়ে কারান্তরীণ করেছে। এতে পরিষ্কার বুঝা যায় দেশে আইনের শাসন নেই। এ সরকার চুরি লুটপাট করে দেশ একটি সন্ত্রাসী রাজত্ব কায়েম করেছে। এখন সারা বিশ্বে মহামারী চলছে এই মহামারীর সময় সরকারের লোকেরা লুটপাট বন্ধ করেনি।

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সভাপতি হাবিব উন নবী খান সোহেলের সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন, বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ভাইস চেয়ারম্যান ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন, শামসুজ্জামান দুদু, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ন মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, তথ্য বিষয়ক সম্পাদক আজিজুল বারী হেলাল, যুবদল সভাপতি সাইফুল ইসলাম নীরব, ছাত্রদল সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল প্রমুখ।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন