• আজ ৩রা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

জামালপুরে টাকা আত্মসাতের মামলায় অধ্যক্ষ কারাগারে

◷ ৮:০৫ অপরাহ্ন ৷ বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী ১৪, ২০২১ ময়মনসিংহ
Jamalpur news

রকিব হাসান নয়ন, জামালপুর প্রতিনিধি: কলেজের টাকা আত্মসাতের মামলায় জামালপুরের ইসলামপুর জে জে কে এম গার্লস হাইস্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মো. আব্দুছ ছালাম চৌধুরীকে কারাগারে পাঠিয়েছেন বিজ্ঞ আদালত।

কলেজের টাকা আত্মসাতের অভিযোগে দায়ের হওয়া মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির পর উচ্চ আদালত থেকে আগাম জামিনে ছিলেন তিনি। আগাম জামিনের মেয়াদ শেষ হওয়ায় জামালপুর জেলা দায়রা জজ আদালতে আত্মসমর্পন করতে গেলে বিজ্ঞ বিচারক তাকে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

জানা যায়, ২২ জুন গভর্নিং বডির অ্যাডহক কমিটির অধ্যক্ষ মো. আব্দুছ ছালাম চৌধুরীর বিরুদ্ধে কলেজের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ তদন্ত শুরু করে।কমিটি তদন্তে অধ্যক্ষ মো. আব্দুছ ছালামের বিরুদ্ধে ২৯ লাখ ২০ হাজার টাকার আত্মাসাতের প্রমাণ পেয়েছে বলে জানান শিক্ষকরা।

টাকা তছরুপ ও আত্মসাতের প্রমাণ পাওয়ায় প্রতিষ্ঠানটির অ্যাডহক কমিটির সদস্য ও সিনিয়র শিক্ষক মো. শামছুল আলম বাদী হয়ে গত ১৩ আগস্ট অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে জামালপুর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করেন। আমলি আদালত জামালপুর পিবিআইকে তা তদন্তের দায়িত্ব দেন। পিবিআই অভিযোগ তদন্ত করে গত ২৫ অক্টোবর আদালতে প্রতিবেদন জমা দেয়।পরে আদালত তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালের ২ ফেব্রুয়ারি আন্তঃনগর তিস্তা এক্সপ্রেস ট্রেনের একটি সিঙ্গেল কেবিনে সাবেক এক ছাত্রীর সঙ্গে অন্তরঙ্গ অবস্থায় রেলওয়ে পুলিশের কাছে আটক হন অধ্যক্ষ মো. আব্দুছ ছালাম চৌধুরী। পরবর্তীতে পুলিশ তাকে জামালপুর রেলওয়ে পুলিশ থানায় সোপর্দ করে। এ ঘটনায় সেখানে জিডি হয়েছে। আরোও জানা যায়, ট্রেনের কেবিনে ছাত্রীর সাথে অধ্যক্ষ ধরা খাওয়ার পর স্থানীয়দের মাঝে তোলপাড় শুরু হয়। পরে, আত্মগোপনে থাকেন অধ্যক্ষ। প্রতিষ্ঠানে আসা বন্ধ করে দেন।