তজুমদ্দিনে খাবারে নেশাজাতীয় দ্রব্য মিশিয়ে চুরি

◷ ৮:৩৮ অপরাহ্ন ৷ বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী ১৪, ২০২১ বরিশাল
Bhola news pic

এস আই মুকুল, নিজস্ব প্রতিবেদক : ভোলার তজুমদ্দিনে রাতের খাবারের সাথে নেশাজাতীয় দ্রব্য মিশিয়ে অচেতন করে নগদ টাকা ও মোবাইলসহ ঘরের মালামাল করে নিয়ে যায় অজ্ঞাত চোরেরা।

এঘটনায় অচেতন ৫জনের মধ্যে ২ জনকে তজুমদ্দিন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

বুধবার (১৩ জানুয়ারী) দিবাগত রাতে উপজেলার শম্ভুপুর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের গোলকপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

অচেতনরা হলেন, মোঃ জিয়াউলহক হাওলাদার (৭০), তার কেয়ারটেকার আঃ মালেক (৬৫), মেয়ে সোনিয়া আক্তার (৩০), ছেলে সাইফুল ইসলাম দিপু (৩২) ও মেয়ের জামাই মোঃ শাহিন মাষ্টার (৩৫)।

সুত্রে জানা যায়, গোলকপুর গ্রামের কুট্টিমিয়া হাওলাদার বাড়ির জিয়াউল হক হাওলাদারের ঘরে রাতের খাবারের সাথে অজ্ঞাত দুষ্কৃতিকারীরা নেশাজাতীয় দ্রব্য মিশিয়ে দেন। পরে রাতের কোন এক সময় তাদের কেয়ার টেকারসহ পরিবারের ৬ সদস্যের মধ্যে ৫জন নেশা মেশানো খাবার খেয়ে অচেতন হয়ে পড়লে দুষ্কৃতিকারীরা ঘরে ডুকে মোবালইল ফোন ও নগদ টাকাসহ বিভিন্ন মালামাল নিয়ে যায়। পরে জিয়াউল হকের মেয়ে মুনিয়া ও স্ত্রী নুরজাহান বেগম টের পেয়ে ডাকচিৎকার দিলে দুষ্কৃতিকারীরা পালিয়ে যায়।

পরে স্থানীয়রা অচেতনদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসলে জিয়াউল হক হাওলাদার ও আঃ মালেককে তজুমদ্দিন হাসপাতালে ভর্তি করেন।

তজুমদ্দিন থানার অফিসার ইনচার্জ এস এম জিয়াউল হক বলেন, ঘটনা শুনার পর ঘটনাস্থল পরির্শন করা হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্থ পরিবার লিখিত অভিযোগ করলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।