সবার আগে ভোট দিয়ে যা বললেন কাদের মির্জা

kader mirza

মোঃ ইমাম উদ্দিন সুমন, নোয়াখালী প্রতিনিধি- বিগত ১৫ বছরের রেকর্ড গড়লেন বলে মন্তব্য ভোটার, পর্যবেক্ষকসহ সবার। বিভিন্ন সময় অন্যান্য ভোটে কেন্দ্র দখলের অভিযোগ তুলেন বিএনপি, কেন্দ্রেও তেমন ভোটার উপস্থিতি থাকেনা। এমনটাই হয়ে আসছে বিগত দিনে।

কিন্তু আওয়ামী লীগ সরকারের অধিনে এতো উৎসাহ উদ্দীপনা নিয়ে আর কোথাও ভোট হয়নি বলে চ্যালেঞ্জ করেছেন নোয়াখালী কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাট পৌরসভার ভোটাররা।

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাট পৌরসভা নির্বাচনে ভোট দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই এবং আওয়ামী লীগের আলোচিত মেয়রপ্রার্থী আবদুল কাদের মির্জা।

শনিবার (১৬ জানুয়ারি) ভোটগ্রহণের শুরুতেই নিজ কেন্দ্র উদয়ন প্রি-ক্যাডেট একাডেমি কেন্দ্রে ভোট দেন তিনি।

সকাল ৮টায় ইভিএমে ভোট শুরুর আগেই কেন্দ্রে যান কাদের মির্জা। এ সময় ভোটারদের সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানান তিনি। এক নম্বর ওয়ার্ডের এই কেন্দ্রটিতে ভোট শুরুর পর প্রথম ভোটটি তিনিই দেন।

পরে সেখানে উপস্থিত সংবাদকর্মীদের তিনি বলেন, নিজের জয়ের ব্যাপারে শতভাগ নিশ্চিত। এই ভোটের মাধ্যমে সন্ত্রাস, অনিয়ম ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে জয় হবে। তবে ভোটে কোনো ধরনের অনিয়ম হলে তার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোরও ঘোষণা দেন কাদের মির্জা।

তিনি বলেন, দলের হাইকমান্ড থেকে তাকে নিশ্চিত করা হয়েছে ভোট অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হবে।

এর আগে প্রার্থী হিসেবে প্রচারণা শুরুর পর থেকেই নিজের বিভিন্ন মন্তব্যের জন্য আলোচিত ছিলেন তিনি। নিজের দল আওয়ামী লীগ এবং দলটির মন্ত্রী, এমপি ও বিভিন্ন নেতার বিরুদ্ধে সমালোচনা করে তুমুল আলোচনায় আসেন তিনি। সমালোচনা করেছেন নিজের বড় ভাই ওবায়দুল কাদেরকে নিয়েও।

তবে নির্বাচনী প্রচারণায় তিনি অভিযোগ করেন, তাকে হারানোর জন্য একাধিক সংসদ সদস্য বিদ্রোহী প্রার্থীর পক্ষে টাকা ঢেলেছেন। এসব মন্তব্যের কারনে দেশব্যাপী আলোচনার ঝড় উঠে, দলীয় কিছু নেতার মান অভিমান থাকলেও তার এসব সাহসী বক্তব্যের কারনে দেশের বহু মানুষের মন জয় করেছেন। তার বক্তব্যে শুনে তাকে দেখতে এসেছেন সূদূর সাতক্ষিরা থেকে এসেছেন এক ব্যক্তি। আজ সারাদেশের নজর আলোচিত বসুরহাট পৌর নির্বাচনে।

◷ ১০:১৪ পূর্বাহ্ন ৷ শনিবার, জানুয়ারী ১৬, ২০২১ আলোচিত বাংলাদেশ