🕓 সংবাদ শিরোনাম

কুরবানীর মাংস রান্না করার সময় ভেসে উঠলো আল্লাহর নাম!ঝাঁকে ঝাঁকে ধরা পড়ছে ইলিশ, হাঁকডাকে সরগরম মৎস্যঘাটকেউ খোঁজ রাখেনি, পল্লী বিদ্যুতের তারে বিদ্যুতায়িত পাপেলের ভরসা এখন হুইল চেয়ারবগুড়ার শেরপুরে সাংবাদিকের বাড়ি দখলের চেষ্টা, থানায় অভিযোগজরুরি অবস্থা জারি করতে রাষ্ট্রপতির কাছে আইনজীবীর আবেদননোয়াখালথতে ঘরে আগুন দিয়ে নারীসহ ৩ জনকে পিটিয়ে আহত করেছে কিশোর গ্যাংওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে দেখা করলেন কাদের মির্জাবগুড়ায় আওয়ামী লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যাকক্সবাজারে ফের পাহাড় ধস, ঘুমন্ত অবস্থায় একই পরিবারের ৫ জনের মৃত্যুশিশু শিক্ষার্থীরা যখন ক্রেতা-বিক্রেতা!

  • আজ বুধবার, ১৩ শ্রাবণ, ১৪২৮ ৷ ২৮ জুলাই, ২০২১ ৷

পায়রা বন্দর দেশের অর্থনীতির একটি শক্তিশালী চালিকার ভূমিকা রাখবে: প্রতিমন্ত্রী খালিদ

khalid
❏ শনিবার, জানুয়ারী ১৬, ২০২১ বরিশাল

জাহিদ রিপন, পটুয়াখালী প্রতিনিধি- নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, বিশ্ব বাণিজ্যের সাথে দেশের সম্প্রসারণ ঘটাতে পায়রা বন্দরের কার্যক্রমকে গতিশীল করা হচ্ছে। বেলজিয়ামের জান ডি নুল এর মাধ্যমে বর্তমানে ম্যান্টেনেন্স ড্রেজিংয়ের কাজ চলছে। খুব শীগ্রই বাংলাদেশ ব্যাংকের সহযোগিতায় সম্পূর্ন দেশীয় অর্থায়নে ক্যাপটিং ড্রেজিংয়ের কাজ শুরু হবে।

তিনি বলেন, রাবনাবাদ চ্যানেলে সেতু নির্মান কাজ খুব শীগ্রই শুরু হচ্ছে। এর মাধ্যমে পায়রা বন্দর শুধু দক্ষিণাঞ্চলের নয় বাংলাদেশের অর্থনীতির একটি শক্তিশালী চালিকা হিসেবে ভূমিকা রাখবে।

শনিবার (১৬ জানুয়ারি) বেলা বিকাল চারটায় পায়রা বন্দর জেটিতে পায়রা সমুদ্র বন্দরের জরুরী রক্ষনাবেক্ষন ড্রেজিং উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তবে তিনি এসব কথা বলেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নৌ-পরিবহন মন্ত্রনালয়ের সচিব মোহাম্মদ মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরী, পায়রা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান কমডোর হুমায়ুন কল্লোল, ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান জান ডে নুল’রর প্রকল্প পরিচালক ইয়াংমইনস। এসময় বন্দরের পরিচালকবৃন্দ, পটুয়াখালীর জেলা প্রশাসক মতিউল ইসলাম চৌধুরী, উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু হাসনাত মোহাম্মদ শহিদুল হক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলী আহম্মেদ উপস্থিত ছিলেন।

মন্ত্রী আরো বলেন, বিদ্যুত উৎপাদন কেন্দ্র বিসিপিসিএলসহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠানে নিয়মিতভাবে কয়লা সরবরাহ নিশ্চিতের লক্ষ্যে কয়লাবাহী জাহাজ চলাচল করতে এবং পায়রা বন্দরের রাবনাবাদ চ্যানেল ব্যবহার করে দেশের বিভিন্ন স্থানে সিমেন্ট, ক্লিঙ্কার, ফুড গ্রেইন, ফ্লাই এ্যাশ, কনস্ট্রাকশন মেটেরিয়ালসহ বিভিন্ন মালামাল পরিবহনের জন্য চ্যানেলের নব্যতা বজায় রাখতে নিয়মিত রক্ষণাবেক্ষণ ড্রেজিং করা মূলত: এই প্রকল্পের উদ্দেশ্য।

বন্দর সূত্রে জানা গেছে, পৃথিবীর অন্যতম বৃহত্তম ড্রেজিং কোম্পানি জান ডে নুল বেলজিয়াম ১৯৫১ সাল থেকে বিশে^র বিভিন্ন বন্দরে ড্রেজিং করে ২০ মিটার পর্যন্ত গভীর চ্যানেলের নব্যতার কাজ সম্পাদন করে আসছে। এ কোম্পানির ড্রেজার বহরে সর্বাধুনিক ও পৃথিবীর সর্ববৃহৎ কাটার সাকশন ড্রেজার ও ট্রেইলিং সাকশন হপার ড্রেজার রয়েছে। এমনকি ভূমধ্যসাগর ও লোহিত সাগরের সংযোগকারী পৃথিবীর বৃহত্তম কৃত্রিম চ্যানেল সুয়েজখাল খননের একক কৃতিত্ব রয়েছে এ কোম্পানির।

ইউরোপ, অস্ট্রেলিয়া, এশিয়া, আফ্রিকা এবং দক্ষিণ আমেরিকাসহ বহু বন্দরে বৃহত্তর বিভিন্ন ড্রেজিং প্রকল্প সম্পন্ন করেছে এই কোম্পানি। রাবনাবাদ ইনার ও আউটার চ্যানেলের প্রায় ৭৫ কিলোমিটার দৈর্ঘ্য এবং ১০০-১২৫ মিটার প্রস্থ চ্যানেলের প্রায় নয় দশমিক ৭৫ মিলিয়ন ঘনমিটার পলি অপসারন করে কাঙ্খিত (ছয় দশমিক তিন মিটার) নব্যতা বজায় রাখতে জরুরী রক্ষনাবেক্ষন ড্রেজিং এর কাজ শুরু হয়েছে। ১৮ মাসব্যাপী এই ড্রেজিং কার্যক্রমের প্রাক্কলিত ব্যয় ধরা হয়েছে ৪৩৭ দশমিক ৩০ কোটি টাকা। যার মধ্যে চুক্তিমূল্য ৪০৮ দশমিক ৮৭ কোটি টাকা। পায়রা বন্দরের নিজস্ব তহবিল থেকে এ টাকা সংকুলানের কথা জানালেন মন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

প্রকল্পের গুরুত্ব বিবেচনা করে অতি স্বল্প সময় পায়রা বন্দর কর্তৃপক্ষের নির্দেশ মোতাবেক চুক্তির পরপরই মোবিলাইজেশন, সাইট প্রিপারেশন কার্য শুরু করা হয় ও হাইড্রোগ্রাফিক জরীপ কাজের জন্য সার্ভে ভ্যাসেল, পন্টুন, ক্রু ভ্যাসেল প্রকল্প এলাকায় আনা হয়েছে।

শুধুমাত্র কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুত কেন্দ্র নিরবিচ্ছিন্ন চালু রাখা ছাড়াও চ্যানেলটির নব্যতা বজায় রেখে বাংলাদেশের কাঙ্খিত বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের ধারা অব্যাহত থাকবে। এর ফলে পায়রা বন্দরের ভাবমূর্তি বৈশি^ক পরিমন্ডলে উজ্জ্বল হবে। পাশাপাশি পায়রা বন্দরে বিনিয়োগের জন্য কন্টেইনার, বাল্ক, এলএনজি টার্মিনালসহ বিভিন্ন স্থাপনা নির্মাণে বিভিন্ন দেশ আগ্রহ প্রকাশ করবে। আসবে এগিয়ে বাইরের উদ্যোক্তা। বন্দর কেন্দ্রিক দেশের দক্ষিণাঞ্চলে শিল্প অবকাঠামো গড়ে উঠবে। উন্নয়ন হবে আর্থ-সামাজিক অবস্থার। মানুষের কর্মসংস্থান বাড়বে। ##

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন