রংপুরে প্রতিবন্ধি নারীকে ধর্ষণ, একজনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

rangpur court

সাইফুল ইসলাম মুকুল, রংপুর- রংপুরের পীরগাছায় প্রতিবন্ধী এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে আসামি আবুল কালামকে দোষী সাব্যস্ত করে যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও এক লাখ টাকা জরিমানার আদেশ দিয়েছেন আদালত।

আজ রোববার দুপুরে রংপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের বিচারক রোকনুজ্জামান এ রায় প্রদান করেন।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, রংপুরের পীরগাছা উপজেলার হরিরাম গ্রামের আব্দুর রহমানের মেয়ে প্রতিবন্ধি, শ্রবণ প্রতিবন্ধি ও বাক প্রতিবন্ধি এক নারীকে একই গ্রামের আব্দুল জলিলের ছেলে আসামি আবুল কালাম ২০০৮ সালের ১ ডিসেম্বর বাসায় একা পেয়ে ওই নারীকে ধর্ষণ করে। ঘটনাটি ইশারায় প্রতিবন্ধি নারী স্বজনদের জানায়।

এর মধ্যেই প্রতিবন্ধি নারী গর্ভবতী হয়ে পড়ে। এরপর ২০০৯ সালের সেপ্টেম্বর মাসের শুরুতে গুরতর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে পীরগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে সেখানে একটি পুত্র সন্তান প্রসব করে।

এ ঘটনায় পীরগাছা থানায় মামলা দায়ের করতে গেলে পুলিশ মামলা গ্রহন করায় প্রতিবন্ধি নারীর বাবা আব্দুর রহমান বাদী হয়ে রংপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করলে আদালত অভিযোগটি মামলা হিসেবে রেকর্ড করার জন্য পীরগাছা থানাকে নির্দ্দেশ দেন।

পরবর্তীকালে পুলিশ আসামী আবুল কালামের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জসিট দাখিল করে। মামলায় ১১ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য ও জেলা গ্রহন শেষে বিজ্ঞ বিচারক আসামী আবুল কালামকে দোষি সাব্যস্ত করে যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও এক লাখ টাকা জরিমানার আদেশ দেন।

এছাড়া বিজ্ঞ বিচারক রায়ে প্রতিবন্ধির গর্ভে জন্ম নেয়া পুত্র সন্তানকে আসামি আবুল কালামের সন্তান হিসেবে স্বীকৃতি প্রদান ও তার ওয়ারিশ হিসেবে সম্পত্তির ভাগ দেবার আদেশ দেন। যদি কোন সম্পদ না থাকে তা হলে রাষ্ট্রকে শিশুটির দায়িত্ব গ্রহণের আদেশ দেন।

বাদী পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন, বিশেষ পিপি এ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর হোসেন তুহিন। তিনি জানান, তারা ন্যায় বিচার পেয়েছেন সেই সাথে প্রতিবন্ধি নারীর গর্ভে জন্ম নেয়া শিশুটির ভরণ পোষনের ব্যাপারে যুগান্তকারী রায় দিয়েছেন।

◷ ৫:২২ অপরাহ্ন ৷ রবিবার, জানুয়ারী ১৭, ২০২১ দেশের খবর, রংপুর