জন্মনিবন্ধন নিতে এসে ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে ধর্ষণের শিকার তরুণী

rape

রকিব হাসান নয়ন, জামালপুর- জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলায় নিলক্ষিয়া ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ের অফিস কক্ষে জন্ম নিবন্ধন সনদ নিতে এসে ধর্ষণের শিকার হয়েছে এক গার্মেন্টস শ্রমিক।

গতকাল সোমবার (১৮ জানুয়ারি) মামলা দায়ের করলে রাতেই অভিযুক্ত ধর্ষক ইউনিয়নের ডিজিটাল উদ্যোক্তা নাজমুল হক বাবু (২২) কে আটক করেছে থানা পুলিশ।

আটককৃত নাজমুল হক বাবু বকশীগঞ্জ উপজেলার নিলক্ষিয়া ইউনিয়নের পশ্চিম নিলক্ষিয়া গ্রামের আবুল কালাম আজাদের ছেলে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ধর্ষণের শিকার ওই নারী ঢাকার একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করতো, করোনা ভাইরাস সময় তিনি চাকরি হারান। দীর্ঘ সময় বাড়িতে থাকার পর নতুন একটি পোশাক কারখানায় চাকরি নেওয়ার জন্য জন্ম নিবন্ধন সনদ ও প্রয়োজনে কিছু কাগজপত্র দরকার হয়। এতে তার জন্ম নিবন্ধনের প্রয়োজন পড়ে। তিনি জন্ম নিবন্ধন সনদ নিতে নিলক্ষিয়া ইউনিয়ন পরিষদে যান।

ইউনিয়ন পরিষদের ইউনিয়নের ডিজিটাল উদ্যোক্তা নাজমুল হক বাবু তাকে ১৪ তারিখে জন্মনিবন্ধন দেওয়ার কথা বলে পরিষদে আসতে বলেন। নির্ধারিত তারিখে ওই পোশাক শ্রমিক জন্ম নিবন্ধন নিতে এলে ইউনিয়নের পরিষদের অফিস কক্ষে অন্য ব্যক্তির সহায়তায় তাকে ধর্ষণ করেন উদ্যোক্তা নাজমুল হক বাবু।

বকশীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিকুল ইসলাম জানান, দুজনকে আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন ওই পোশাক শ্রমিক। নাজমুল হক বাবুকে মধ্যরাতে তার নিজবাড়ি থেকে আটক করা হয়েছে। ধর্ষণে সহয়তা করা অপর ব্যক্তিকে আটকের চেষ্টা চলছে।

◷ ৩:৫৬ অপরাহ্ন ৷ মঙ্গলবার, জানুয়ারী ১৯, ২০২১ ময়মনসিংহ