কাগজপত্র দেখতে চাওয়ায় সার্জেন্টকে পিটিয়ে জখম করলো দুই যুবক

৬:৩৫ অপরাহ্ন | মঙ্গলবার, জানুয়ারী ১৯, ২০২১ রাজশাহী
police

অসীম কুমার সরকার, রাজশাহী জেলা প্রতিনিধি: রাজশাহী মহানগরীতে মোটরসাইকেলের কাগজপত্র দেখতে চাওয়ায় বিপুল ভট্টাচার্য (৩২) নামের এক সার্জেন্টকে পিটিয়ে জখম করেছে দুই যুবক।

আজ মঙ্গলবার দুপুর দেড়টার দিকে নগরীর সিটি বাইপাস সংলগ্ন ঘোড়া চত্বরে এ ঘটনা ঘটে। হামলাকারী দুই যুবক সার্জেন্টকে মারধরকরে পালিয়ে যেতে সক্ষম হলেও তাদের মোটরসাইকেলটি জব্দ করেছে পুলিশ।

হামলাকারী এক যুবকের পরিচয় শনাক্ত করেছে পুলিশ। ওই যুবক নগরীর রাজপাড়া থানার লক্ষীপুর ভাটাপাড়া এলাকার শামসুল হকের ছেলে বেলাল হোসেন। তাকে ধরতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

আহত সার্জেন্টকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা গেছে, মঙ্গলবার দুপুরে নগরীর সিটি বাইপাস সংলগ্ন ঘোড়া চত্বরে দায়িত্ব পালনকালে যানবাহনের কাগজ পরীক্ষা করছিলেন সার্জেন্ট বিপুল ভট্টাচার্য। এ সময় ওই রাস্তা দিয়ে বেলাল নামের এক যুবক হেলমেট না পরেই খালি মাথায় মোটরসাইকেল নিয়ে যাচ্ছিলেন। কর্তব্যরত সার্জেন্ট বিপুল তাকে থামিয়ে কাগজপত্র দেখতে চান। কাগজপত্র দেখতে চাওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে বেলাল কাঠের চলা দিয়ে সার্জেন্টকে পেটাতে শুরু করে। আঘাতে সার্জেন্ট মাটিতে লুটিয়ে পড়লে স্থানীয়রা তাৎক্ষনিক ছুটে গেলে হামলকারী বেলাল ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়।

তবে তার মোটরসাইকেলটি নিয়ে যেতে পারেনি। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। দুপুর আড়াইটার দিকে আরএমপি কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক সার্জেন্ট বিপুলকে দেখতে হাসপাতালে যান এবং তার চিকিৎসার খোঁজ খবর নেন। হামলাকারীকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় নিয়ে আসার নির্দেশ দেন তিনি।

রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের মুখপাত্র অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (সদর) গোলাম রুহুল কুদ্দুস জানান, আহত সার্জেন্ট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। কাগজপত্র দেখতে চাওয়ায় তাকে মারধর করা হয়েছে। এতে তার হাত ভেঙ্গে গেছে। কমিশনার স্যার হাসপাতালে গিয়ে তার চিকিৎসার খোঁজখবর নিয়েছেন। মামলা দায়ের প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। আইন অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। আসামীকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।