বেলকুচিতে জমি ও ঘর পেল ৪০টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবার

৪:৫৬ অপরাহ্ন | শনিবার, জানুয়ারী ২৩, ২০২১ রাজশাহী

উজ্জ্বল অধিকারী, বেলকুচি (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি: মাথা গোঁজার ঠাঁই পেল সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে ৪০ ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবার। জমি ও ঘর পাওয়ার আনন্দে উল্লাসিত এসব পরিবার।

‘আশ্রয়ণের অধিকার শেখ হাসিনার উপহার’ এ শ্লোগানকে সামনে রেখে মুজিববর্ষ উপলক্ষে সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে প্রতি ঘর ১ লক্ষ ৭১ হাজার টাকা ব্যয়ে গুচ্ছাকারে ও একক ভাবে নির্মাণ করা হয়েছে ৪০টি সেমি পাকা ঘর। ঘরগুলো হস্তান্তর করেছে বেলকুচি উপজেলা প্রশাসন।

দেশনেত্রী প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী ২৩শে জানুয়ারি শনিবার সকালে বেলকুচি উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের আশ্রয়ণ -২ প্রকল্পের আওতায় ৪০টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে তাদের স্বপ্নের ঠিকানা হিসাবে ভূমি ও গৃহ প্রদান করা হয়। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সারা দেশে ৬৬ হাজার ১৮৯টি ঘর বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন হওয়ার সাথে সাথে বেলকুচি উপজেলার ৪০ জন গৃহহীন ও ভূমিহীনদের মাঝে জমি ও ঘরের দলিলপত্র হস্তান্তর করা হয়।

বেলকুচি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আনিসুর রহমান বলেন, ভূমিহীন ও গৃহহীনদের মাঝে বেলকুচিতে মোট ৪০টি ঘর হস্তান্তর করা হয়েছে। তিনি আরও জানান, আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় উপজেলার বিভিন্ন স্থানে ৪০টি ঘর হস্তান্তর করা হয়। যার মধ্যে সমেশপুর গ্রামে ১৫টি, বয়রাবাড়ী গ্রামে ১১টি, জোকনালা গ্রামে ১১টি দৌলতপুর গ্রামে ৩টি ঘর হস্তান্তর করা হয়। জমি ও ঘরে পেয়ে সবাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানান।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, বেলকুচি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম সাজেদুল, ভাইস চেয়ারম্যান ইউসুফ আলী শেখ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আনিসুর রহমান, সহকারী কমিশনার (ভূমি) এস এম রবিন শীষ, থানা অফিসার ইনচার্জ গোলাম মোস্তফা, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা রাশেদুল ইসলাম, উপজেলা আ’লীগের সভাপতি একেএম ইউসুফজী খাঁন, সাধারণ সম্পাদক ফজলুল হক সরকার সহ সরকারী বিভিন্ন পদস্থ কর্মকর্তা সহ কর্মচারীবৃন্দ।

রাহেলা খাতুন ও নজরুল ইসলাম ঘর পাওয়ার আনন্দে জানান, আগে মানুষের জমিতে থাকতাম, এখন আমাদের মাথা গোঁজার ঠাঁই হল। ঘর ও জমি পাওয়ায় আমরা খুব খুশি।