• আজ ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

১১ ঘণ্টা পর শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে ফেরি চলাচল স্বাভাবিক

feri

মোঃ রুবেল ইসলাম তাহ্মিদ, মাওয়া মুন্সীগঞ্জ- ঘন কুয়াশার কারণে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে ১১ ঘন্টা ফেরী সার্ভিস বন্ধ ছিল। রোববার রাত ১০টা থেকে সোমবার সকাল ৯টা পর্যন্ত ফেরী, লঞ্চ, স্পীডবোটসহ সকল নৌচলাচল বন্ধ থাকে। পরবর্তীতে কুয়াশা কেটে গেলে দীর্ঘ ১১ ঘন্টা পর শিমুলিয়া ও বাংলাবাজার থেকে পুনরায় নৌরুটে ফেরী চলাচল শুরু হয়।

এদিকে ঘন কুয়াশার কারণে দুর্ঘটনা এড়াতে মাঝপদ্মার একাধিক পয়েন্টে পণ্যবাহী ট্রাক ও যাত্রীবাহী যানবাহন নিয়ে ভিআইপি গাড়ী বহনকারী ফেরী ক্যামেলিয়াসহ মোট ৭টি ফেরী নোঙরে ছিল।

অপরদিকে ফুললোড অবস্থায় যাত্রী ও যানবাহন নিয়ে শিমুলিয়া ফেরীঘাটে ৩টি ও বাংলাবাজার ঘাটে ১টি ফেরীসহ মোট ৪টি ফেরী পন্টুনে ভেড়ানো থাকে। এতে করে সকালে শিমুলিয়া ফেরীঘাটে প্রায় সাড়ে ৪ শত যানবাহন পারপারের অপেক্ষায় থাকায় প্রচন্ড শীতের মধ্যে নৌরুটের মাঝপদ্মায় ও ঘাটে চরম দুর্ভোগে পড়েন দক্ষিণবঙ্গের যাত্রীরা।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সকালে শিমুলিয়া ঘাটে আড়াই শত পণ্যবাহী ট্রাকসহ সব মিলিয়ে সাড়ে ৩ শত যানবাহন পারপারের অপেক্ষায় রয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন বিআইডব্লিউটিসির শিমুলিয়া ঘাটের ম্যারিন অফিসার মোহাম্মদ আহম্মেদ আলী।

বিআইডব্লিউটিসির সূত্রে জানা গেছে, গত কয়েকদিন ধরে ঘন কুয়াশায় বিপর্যস্ত হয়ে পড়ছে শিমুলিয়া নৌরুটের নৌচলাচল। এতে করে চরম বিঘ্নিত হচ্ছে এ রুটের ফেরী, লঞ্চ, স্পীডবোটসহ সকল নৌ চলাচল। প্রকৃতির কাছে অসহায় পদ্মা পারাপারের যাত্রীরা যেন নিত্য দুর্ভোগের সঙ্গী।

◷ ১০:৩৮ পূর্বাহ্ন ৷ সোমবার, জানুয়ারী ২৫, ২০২১ ঢাকা