হবিগঞ্জে স্কুলছাত্রকে হত্যা করে ফোনে অভিভাবকের কাছে চাঁদা দাবি, আটক ৩

atok

মঈনুল হাসান রতন, হবিগঞ্জ প্রতিনিধি- হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলায় তানভীর (১৫) নামে দশম শ্রেণীতে পড়ুয়া এক স্কুল ছাত্রের লাশ পুকুর থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারী) দুপুর ১টার দিকে উপজেলার নুরপুর ইউনিয়নের পশ্চিম নছরতপুর গ্রামের সৈয়দ আলীর বাড়ীর পুকুর থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। নিহত তানভীর একই গ্রামের ফারুক মিয়ার পুত্র। সে স্থানীয় আফরাজ আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র।

আটককৃতরা হলো- উপজেলার পশ্চিম নছরপুর গ্রামের সৈয়দ আলীর পুত্র উজ্জল মিয়া (২৫) ও নুরপুর গ্রামের মলাই মিয়ার পুত্র শান্ত (২৬) ও বাছিরগঞ্জ বাজারের জলিল কবিরাজের পুত্র জাহিদ মিয়া (২৮)।

পুলিশ জানায়, ২৪ জানুয়ারী সন্ধ্যার পর থেকে তানভীরকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না মর্মে তার অভিভাবক মৌখিকভাবে থানায় জানানোর পর থেকে পুলিশ তদন্ত শুরু করে। এরই মাঝে ঘাতকরা তানভীরকে হত্যা করে অভিভাবকের কাছে ফোন দিয়ে চাঁদা দাবি করে। ফোনের সূত্রধরেই তিনজনকে আটক করা হয় এবং তাদের তথ্যমতে সৈয়দ আলীর বাড়ির পুকুর থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ রবিউল ইসলাম বলেন, অভিভাবকের কাছে চাঁদার দাবিতে স্কুলছাত্র তানভীরকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। যারা এই হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে তাদেরকে আইনের মাধ্যমে শাস্তি নিশ্চিত করা হবে।

শায়েস্তাগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) অজয় চন্দ্র দেব নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, লাশের শরীরে আঘাতের চিহৃ পাওয়া গেছে। ময়না তদন্তের জন্য লাশ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে এবং মামলা দ্বায়ের প্রস্তুতি চলছে।

◷ ৫:৫৬ অপরাহ্ন ৷ মঙ্গলবার, জানুয়ারী ২৬, ২০২১ সিলেট