সংবাদ শিরোনাম

রাজশাহীতে বিএনপির সমাবেশে যেতে তাবিথকে ‘বাধা’গাজীপুরে সকল ট্রেনের যাত্রাবিরতির দাবিতে অবস্থান ধর্মঘটচমেকে অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, ব্যাপক ভাঙচুর‘আত্মত্যাগের মধ্যেই হলো একজন মানুষের জীবনের স্বার্থকতা’: উপাচার্য ড. হারুন-অর-রশিদদণ্ডিত আসামি দিয়ে সুবর্ণ জয়ন্তী উদ্বোধন করে মুক্তিযুদ্ধের প্রতি অসম্মান করেছে বিএনপিবাংলাদেশ এখন চীন-ভারত-মালয়েশিয়ার কাতারে : অর্থমন্ত্রীপেট্রাপোল বন্দরে বাংলাদেশে প্রবেশের অপেক্ষায় ৫ হাজার ট্রাক !ইসিকে হেয় করতে যা দরকার সবই করছেন মাহবুব তালুকদার: সিইসিআশুলিয়ায় ঝুট ব্যবসাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষ, আহত-১০ভাসমান হাসপাতাল ‘জীবন তরী’এখন ঝালকাঠির সুগন্ধা নদী তীরে

  • আজ ১৭ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা বিএনপি প্রার্থীর

১:৫২ অপরাহ্ন | শনিবার, জানুয়ারী ৩০, ২০২১ ঢাকা
vote

সময়ের কণ্ঠস্বর, কিশোরগঞ্জ- কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী পৌরসভা নির্বাচনে একটি কেন্দ্রে দুই কাউন্সিলর প্রার্থী সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে।

আজ শনিবার বেলা ১১টার দিকে পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের তড়িয়াকোনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। এতে উভয় পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। তবে প্রাথমিকভাবে তাঁদের নাম জানা যায়নি।

ভোটকেন্দ্রে সংঘর্ষের বিষয়টি স্বীকার করে নির্বাচনে দায়িত্বরত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রফিকুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় কিছুক্ষণ ভোট বন্ধ থাকার পর আবার ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে।

এদিকে আওয়ামী লীগের একচ্ছত্র নিয়ন্ত্রণ ও প্রভাবের অভিযোগ তুলে ভোট বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন বিএনপির মেয়র প্রার্থীর তোফাজ্জল হোসেন খান। তিনি বলেন, নৌকার সমর্থকেরা সকাল থেকে সব কটি কেন্দ্রে নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করেছেন। ধানের শীষের ভোটারদের বাধা দেওয়া হয়েছে। তাই তিনি নির্বাচন সরে দাঁড়ালেন।

শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় কটিয়াদী পৌর এলাকার নিজ বাগান বাড়ি প্রাঙ্গণে সংবাদ সম্মেলন করে নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করে সরে দাঁড়িয়েছেন উপজেলা বিএনপি এই সভাপতি।

এ সময় উপজেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দসহ বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে বিতাড়িত বিএনপি মনোনীত প্রার্থীর এজেন্টরা উপস্থিত ছিলেন।

কটিয়াদী পৌরসভায় মোট ভোটার সংখ্যা ৩০ হাজার ৪৬৬ জন। এরমধ্যে নারী ভোটার ১৫ হাজার ৭৩০ এবং ১৪ হাজার ৭৩৬ জন ভোটার রয়েছেন। ১৪টি কেন্দ্রের এবং ৮৪টি বুথে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

একই সময় একই অভিযোগে পুনঃনির্বাচনের দাবিতে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেত্রী মেয়র প্রার্থী সালমা আনিকা।