🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ সোমবার, ১৮ শ্রাবণ, ১৪২৮ ৷ ২ আগস্ট, ২০২১ ৷

ত্রিশালে প্রতিবেশী চাচার ধর্ষণে ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা কিশোরী!

rape
❏ বুধবার, ফেব্রুয়ারী ৩, ২০২১ ময়মনসিংহ

মামুনুর রশিদ, ত্রিশাল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি- পাশের বাড়ির একই গোষ্ঠির (বংশের) লম্পট চাচা দুলাল মিয়ার কুনজরে পড়ে দিনমজুর বাবার পনের বছর বয়সি এক মেয়ে। এরপর একদিন সুযোগ বুঝে হাবা ও সরল প্রকৃতির ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করে সে। বর্তমানে ওই কিশোরী ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা।

এ ঘটনায় কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে ময়মনসিংহের ত্রিশালের ধানীখোলা ইউনিয়নের উজানদাসপাড়া গ্রামে।

ধানীখোলা ইউনিয়নের উজানদাসপাড়া গ্রামের চার সন্তানের জনক ওই কিশোরীর বাবা সংসারের অভাব ঘুচাতে কিছু জমির বর্গা চাষের পাশাপাশি দিনমজুরের কাজ করেন। তার হাবা ও সহজ-সরল প্রকৃতির এক মেয়ের ওপর কু-দৃষ্টি পড়ে চেরাগ আলী শেখের ছেলে দুলাল মিয়ার।

একই বংশ আর সম্পর্কে চাচা হয়েও কিশোরীটি তার লালসার শিকার হয়। একদিন সুযোগ বুঝে পনের বছর বয়সি ওই কিশোরীকে ভয়ভীতি দেখিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন লম্পট চাচা দুলাল মিয়া।

লোক লজ্জার ভয়ে ওই ঘটনা চাপা রাখার মধ্যে দিয়েই পেড়িয়ে যায় ৫ মাস। এরপর ধর্ষিত কিশোরীটি যখন ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা, তখন তার শারীরিক পরিবর্তন দেখে পরিবারের লোকজন বিষয়টি বুঝতে পারেন। মেয়েটির সঙ্গে কথা বলে বিস্তারিত জানতে পারে তার পরিবার।

গত ৪ জানুয়ারি কিশোরির বাবা বাদী হয়ে ত্রিশাল থানায় ধর্ষণের অভিযোগ এনে একটি মামলা দায়ের করেন। থানায় অভিযোগের একমাস পেড়িয়ে গেলেও গ্রেফতার হয়নি ওই ধর্ষক।

কিশোরীর বাবা হাফিজুল ইসলাম জানান, থানায় অভিযোগের একমাস পেড়িয়ে গেলেও গ্রেফতার হয়নি আসামি।

তবে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা তানভীর রহমান জানান, তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে আসামিকে গ্রেফতারের জোর চেষ্টা চলছে।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন