আরতুগ্রুল সিরিজ দেখে মার্কিন নারীর ইসলাম গ্রহণ


বিনোদন ডেস্ক- তুরস্কের জনপ্রিয় টিভি সিরিজ ‘রেজারেকশন: আরতুগ্রুল’ দেখে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন ৬০ বছর বয়সী এক মার্কিন নারী।

উইসকনিনের ওই নারী তুরস্কের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম আনাদোলু এজেন্সিকে জানিয়েছেন, নেটফ্লিক্সে সিরিজটি দেখার পর তিনি ইসলাম গ্রহণ করেন। নিজের নাম পরিবর্তন করে রাখেন ‘খাদিজা’।

‘ইতিহাস সম্পর্কে আমি বরাবরই আগ্রহী। সেই আগ্রহ থেকেই আমি এটা (সিরিজটা) সম্পর্কে জানতে পারি। এরপর বিস্তারিত খোঁজখবর নিয়ে সিরিজটি দেখা শুরু করি। কয়েক পর্ব দেখার পরই ইসলাম সম্পর্কে আমার আগ্রহ তৈরি হয়।’ বলছিলেন খাদিজা।

সিরিজটি সম্পর্কে তিনি বলেন, এটা এমন একটা ইতিহাস নিয়ে তৈরি যা সম্পর্কে আমার আগে কোনো ধারণাই ছিলো না।

তিনি জানান, সিরিজটিতে মুহিউদ্দিন ইবনে আরাবির ডায়ালগগুলে তাকে জীবনের নতুন অর্থ শিখিয়েছে। ইবনে আরাবির কথাগুলো তাকে ভাবিয়েছে, কখনো কখনো কাঁদিয়েছে।

দীর্ঘ এ সিরিজটির এপিসোডগুলো চারবার দেখে ফেলেছেন খাদিজা। পঞ্চমবার দেখা শুরু করেছেন বলে জানিয়েছেন।

এই সিরিজটির মধ্যমেই মূলত ইসলামের সঙ্গে তার পরিচয়।

‘আমি নতুন ইতিহাস সম্পর্কে জানতে শুরু করি। এটা ধর্ম সম্পর্কে আমার দৃষ্টি খুলে দেয়। বলছিলেন খাদিজা।

ছয় সন্তানের জননী খাদিজা আগে একজন ব্যাপ্টিস্ট খ্রিস্টান ছিলেন। ‘রেজারেকশন: আরতুগ্রুল’ দেখার পর তিনি ইসলাম সম্পর্কে আরো গভীরভাবে জানতে কোরআনের ইংরেজি অনুবাদ পড়া শুরু করেন। তিনি জানান, আমার মাথায় যে প্রশ্নগুলো ঘুরপাক খাচ্ছিল তার উত্তর মিলতে থাকে কোরআন পড়েই।

ইসলাম সম্পর্কে মোটামুটি জানাশোনার পর একদিন তিনি স্থানীয় একটি মসজিদে যান। সেখানে উপস্থিত মুসল্লিরা তাকে দেখে অবাক হন।

খাদিজা বলেন, আমি ওইদিনই ইসলাম গ্রহণ করি।

নিজের ইসলাম গ্রহণের কথা বন্ধুদের জানানোর পর তারও অবাক হয়ে যান। সবাই ভাবতে থাকেন, তাকে ব্রেইনওয়াশ করা হয়েছে।

‘আমি মানুষের সঙ্গে এ বিষয়ে বেশি কথাবার্তা বলি না। আমি তাদের বিশ্বাসে হস্তক্ষেপ করি না। আমার বিশ্বাসে হস্তক্ষেপ করার কোনো কারণও তাদের নেই।’ বলছিলেন খাদিজা।

◷ ৯:৩৪ অপরাহ্ন ৷ শনিবার, ফেব্রুয়ারী ৬, ২০২১ বিনোদন