বিএনপির নয়াপল্টনের অফিস হচ্ছে গুজবের ফ্যাক্টরি : কাদের

৩:০২ অপরাহ্ন | রবিবার, ফেব্রুয়ারী ৭, ২০২১ জাতীয়
কাদের

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- রাজধানীর নয়াপল্টনে অবস্থিত বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়কে গুজবের ফ্যাক্টরি বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আজ রোববার সকালে সরকারি বাসভবন থেকে নিয়মিত ব্রিফিংয়ে এ মন্তব্য করেন তিনি।

বিএনপির প্রতি হুঁশিয়ার উচ্চারণ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘তাদের কোনো অপকর্ম বিনা চ্যালেঞ্জে ছেড়ে দেওয়া হবে না। জেল, জুলুম, নির্যাতন আর রাজপথ থেকে উঠে আসা জনগণের সংগঠন আওয়ামী লীগকে আন্দোলনের ভয় দেখিয়ে কোনো লাভ নেই।’

বিএনপি নেতাদের নিজস্ব কোনো বক্তব্য নেই, টেমস নদীর পাড় থেকে পাঠানো ফরমায়েশি বার্তা তোতাপাখির মতো পড়েন মন্তব্য করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বিএনপির নয়াপল্টন অফিস হচ্ছে গুজবের ফ্যাক্টরি। সেই ফ্যাক্টরি থেকে আসা অপপ্রচারের বাণীতে খোদ বিএনপির নেতাদের মধ্যেই অবিশ্বাসের দেয়াল তৈরি করছে।’

সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি নেতারা গণমাধ্যমে আন্দোলনের ঢেউ তুললেও তারা রাজপথে নামেন না। নামলেও ফেসবুকে দেওয়ার জন্য ছবি তুলে পালানোর পথ খুঁজেন। তারা আন্দোলনের ডাক দিয়ে জানালা দিয়ে পুলিশের গতিবিধি আর হিন্দি সিনেমা দেখেন। ফলে কর্মীরাও মাঠে নামে না। এমনকী তাদের নেত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য জীবন দেওয়ার শপথ করলেও একদিনও এই দাবিতে অন্তত: ৫০০ মানুষ নিয়ে আন্দোলন করতে পারেনি। যেখানে তাদের কেন্দ্রীয় কমিটিই প্রায় ৫০০ সদস্যের ঢাউস আকারে। তবে, অতীতের মতো এবারও আন্দোলনের নামে কোনও অপকর্ম বিনা চ্যালেঞ্জে ছেড়ে দেওয়া হবে না।’

কাদের বলেন, ‘পাঁচ শত সদস্যের ঢাউস কমিটি থাকা সত্ত্বেও একটি বড় মিছিল যারা করতে পারে না, তাদের মেরুদণ্ডের শক্তি সম্পর্কে জনগণ বুঝতে পেরেছে। তাই নির্বাচনে তাদেরকে ভোট দেয় না। বিএনপির কেবলা এখন লন্ডনে বলে লন্ডনকে খুশি করার জন্যই তারা মিথ্যাচারের প্রতিযোগিতায় নেমেছে।’

আন্দোলন নয় বরং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বদান্যতায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া মুক্তি পেয়েছে দাবি করে তিনি বলেন, ‘বিএনপির একাংশ চেয়েছিল খালেদা জিয়া বন্দী থাকুন এবং তারা ওনার চিকিৎসা নিয়ে রাজনীতি করবেন।’