টাঙ্গাইলে প্রথম করোনা টিকা নিলেন জেলা প্রশাসক আতাউল

ataur

মোল্লা তোফাজ্জল, টাঙ্গাইল প্রতিনিধি- টাঙ্গাইলে প্রথম করোনা টিকা নিলেন জেলা প্রশাসক ড. মো. আতাউল গনি।

রোববার (৭ জানুয়ারি) সকালে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সারাদেশে একযোগে করোনা ভ্যাকসিন প্রয়োগ কার্যক্রম উদ্বোধনের পর তিনি টাঙ্গাইলে প্রথম করোনা টিকা নেন। এরপর পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় টিকা নেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সদর আসনের এমপি ছানোয়ার হোসেন, মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর ড. মো. আলাউদ্দিন, জেলা প্রশাসক ড. মো. আতাইল গনি, পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায়, সিভিল সার্জন ডা. আবুল ফজল মো. শাহাবুদ্দিন খান, জেনারেল হাসপাতালের তত্তবধায়ক ডা. সদর উদ্দিন প্রমুখ।

সিভিল সার্জন ডা. আবুল ফজল মো. শাহাবুদ্দিন খান জানান, জেলার মোট ৪২টি কেন্দ্রে নিবন্ধিত ব্যক্তিদের শরীরে করোনা ভ্যাকসিন প্রয়োগ কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

টাঙ্গাইল ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নয়টি কেন্দ্র ও বাকি ১১টি উপজেলার প্রতিটি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তিনটি করে বুথ স্থাপন করা হয়েছে। প্রতি বুথে দুই জন করে টিকাদান কর্মী ও চারজন স্বেচ্ছাসেবক দায়িত্ব পালন করবে। জেলায় মোট একলাখ বিশ হাজার ডোজ করোনা ভ্যাকসিন মজুদ রয়েছে। পর্যায়ক্রমে নিবন্ধিত ব্যক্তিদের শরীরে করোনা ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হবে।

পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় বলেন, করোনা ভাইরাসের শুরু হওয়ার পর থেকে আমরা অপেক্ষা ছিলাম কখন টিকা আবিস্কার হবে। বিজ্ঞানী টিকা আবিস্কার করার পর প্রধানমন্ত্রী যথাসময়ে আমাদের দেশে নিয়ে এসেছেন। টিকা নেওয়ার পর থেকে আমি সুস্থ। আমার খুব ভাল লাগছে।

জেলা প্রশাসক ড. মো. আতাউল গনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রচেষ্টায় আমাদের দেশে টিকা এসেছে। টাঙ্গাইলে আমি প্রথমে টিকা নিতে পেরে আনন্দিত। আজ থেকে আমি সুরক্ষিত। আমি চাই টাঙ্গাইলে যারা টিকা নেওয়ার জন্য আবেদন করেছেন তারা পর্যায়ক্রমে টিকা গ্রহণ করবেন।

◷ ৬:২৪ অপরাহ্ন ৷ রবিবার, ফেব্রুয়ারী ৭, ২০২১ ঢাকা