আগামীকাল লালমনিরহাট ও পাটগ্রাম পৌরসভায় নির্বাচন, সব প্রস্তুতি সম্পন্ন

৬:১৫ অপরাহ্ন | শনিবার, ফেব্রুয়ারী ১৩, ২০২১ রংপুর
Lalmonirhat news

মোঃ ইউনুস আলী, লালমনিরহাট প্রতিনিধি: আগামীকাল রবিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) চতুর্থ ধাপে লালমনিরহাট জেলা সদর ও পাটগ্রাম পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ভোট গ্রহণ চলবে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। ইতিমধ্যে পৌরসভা নির্বাচনের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন।

পৌরসভা দুটির মধ্যে মধ্যে লালমনিরহাট সদর পৌরসভায় ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) এর মাধ্যমে এবং পাটগ্রাম পৌরসভায় ব্যালট পেপারের মাধ্যমে ভোট নেওয়া হবে বলে জানা গেছে।

এ নির্বাচন উপলক্ষে গতকাল শুক্রবার (১২ ফেব্রুয়ারি) মধ্যরাত থেকে সব ধরনের প্রচার-প্রচারণা বন্ধ হয়েছে।

লালমনিরহাট পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন- বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মোঃ মোফাজ্জল হোসেন (নৌকা), জাতীয় পার্টির এসএম ওয়াহিদুল হাসান (লাঙ্গল), বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপির মোশারফ হোসেন রানা (ধানের শীষ), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মোঃ আমিনুল ইসলাম (হাত পাখা), স্বতন্ত্র মোঃ রেজাউল করিম (নারিকেল গাছ)। এখানে মোট ভোটার সংখ্যা ৪৭হাজার ৭শত ৬৯জন।

লালমনিরহাট পৌরসভা নির্বাচনে সাধারণ কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্ববন্দ্বিতা করছেন- ০১ নং ওয়ার্ডে, এ.টি.এম সামসুজ্জামান প্রামানিক মিঠু (গাজর), মোঃ আসাদুজ্জামান (ডালিম), মোঃ জিয়াউর রহমান (উটপাখি), মোঃ নুর জামাল সরকার (টেবিল ল্যাম্প), মোঃ মোকলেছুর রহমান মুকুল (পানির বোতল), মোঃ রফিকুল ইসলাম (পাঞ্জাবী)। এখানে মোট ভোটার সংখ্যা ৬হাজার ৬শত ৮১জন।

০২ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী, মোঃ জহুরুল হক (ব্লাকবোর্ড), মোঃ নুর আলম (উটপাখি), মোঃ নুরজ্জামাল হোসেন (ডালিম), মোঃ রাশেদুল হাসান (পাঞ্জাবী)। এখানে মোট ভোটার সংখ্যা ৫ হাজার ৯৬ জন।

০৩ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী, মোঃ আবু সুফিয়ান (টেবিল ল্যাম্প), মোঃ কিসমত আলী (উটপাখি), মোঃ মোকছেদুর রহমান (পাঞ্জাবী), মোঃ মাকসুদুন নবী (ডালিম)। এখানে মোট ভোটার সংখ্যা ৫ হাজার ৩ শত ৫৮ জন।

০৪ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী, মোঃ আজিজুর রহমান তুহিন (টেবিল ল্যাম্প), মোঃ এনামুল হক (ঢেঁড়শ), মোঃ আব্দুল করিম শেখ (উটপাখি), মোঃ আব্দুল হোসেন (ডালিম), মোঃ গোলাম মোস্তফা (পাঞ্জাবী), মোঃ দেলওয়ার হোসেন (পানির বোতল)। এখানে মোট ভোটার সংখ্যা ৬ হাজার ৪ শত ১৫জন।

০৫ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী, নুর আলম (ডালিম), মোঃ আব্দুল ওয়াজেদ বুলু (পাঞ্জাবী), মোঃ আব্দুস সালাম (উটপাখি)। এখানে মোট ভোটার সংখ্যা ৬ হাজার ৪৪ জন।

০৬ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী, মোঃ আব্দুস ছালাম (পানির বোতল), মোঃ গোলাম মর্তুজা (ডালিম), মোঃ শফিকুল ইসলাম (উটপাখি), মোঃ সাইফুল ইসলাম (গাজর)। এখানে মোট ভোটার সংখ্যা ৫ হাজার ২ শত ২৬ জন।

০৭ ২ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী, মোঃ সোহেল রানা (পাঞ্জাবী), মোঃ হাসান কামাল (পানির বোতল)। এখানে মোট ভোটার সংখ্যা ৩ হাজার ৯ শত ৮৮ জন।

০৮ ২ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী, মোঃ আবু জাহেদ (টেবিল ল্যাম্প), মোঃ নুরুল ইসলাম (উটপাখি)। এখানে মোট ভোটার সংখ্যা ৪ হাজার ১ শত ১ জন।

০৯ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী, মোঃ আবুল কালাম আজাদ (গাজর), মোঃ আলম হোসেন (ডালিম), মোঃ রবিউল ইসলাম (টেবিল ল্যাম্প), মোঃ হারুন অর রশিদ বাদশা (উটপাখি), স্বাধীন রহমান (ব্লাক বোর্ড)। এখানে মোট ভোটার সংখ্যা ৪ হাজার ৮ শত ৬০ জন।

লালমনিরহাট পৌরসভা নির্বাচনে সংরক্ষিত মহিলা আসনের কাউন্সিলর পদে যাঁরা প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন:

এক (১,২,৩) নং ওয়ার্ডে সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী, মোছাঃ জাহেদা বেগম (আনারস), মোছাঃ রমিছা বেগম (চশমা), মিসেস বিউটি রহমান (অটোরিক্সা)। এখানে মোট ভোটার সংখ্যা ১৭হাজার ১শত ৩৫জন।

দুই (৪,৫,৬) নং ওয়ার্ডে সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী, চায়না রানী (আনারস), মোছাঃ খাদিজা বেগম (অটোরিক্সা), মোছাঃ নাছিমা আক্তার (চশমা), মোছাঃ ফেরদৌসী খাতুন (কলম), মোছাঃ সুজাতা বেগম (টেলিফোন), শামীমা আক্তার (জবাফুল)। এখানে মোট ভোটার সংখ্যা ১৭হাজার ৬শত ৮৫জন।

তিন (৭,৮,৯) নং ওয়ার্ডে সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী, মোছাঃ ছালেহা বেগম (আনারস), মোছাঃ জাহানারা বেগম (জবাফুল), মোছাঃ নাসরিন আক্তার (চশমা), মোছাঃ ফাতেমা বেগম (টেলিফোন), মোছাঃ রুজি বেগম (অটোরিক্সা)। এখানে মোট ভোটার সংখ্যা ১২হাজার ৯শত ৪৯জন।

পাটগ্রাম পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন- বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মোঃ রাশেদুল ইসলাম সুইট (নৌকা), বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপির একে মোস্তফা সালাউজ্জামান ওপেল (ধানের শীষ), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মোঃ সুমন মিয়া (হাত পাখা), স্বতন্ত্র কাজী আসাদুজ্জামান (নারিকেল গাছ)। এখানে মোট ভোটার সংখ্যা ২১হাজার ৮শত ৫৫জন।

পাটগ্রাম পৌরসভা নির্বাচনে সাধারণ আসনের কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন- ০১ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী, মোঃ রফিকুল ইসলাম (পাঞ্জাবি), মোঃ রফিকুল ইসলাম প্রধান (উটপাখি)। এখানে মোট ভোটার সংখ্যা ১হাজার ৬শত ২৮জন।

০২ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী, মোঃ আবু বক্কর ছিদ্দিক প্রধান (উটপাখি), মোঃ মাহবুব কামাল শাহিন (ডালিম), মোঃ সহিদুল ইসলাম (পাঞ্জাবি)। এখানে মোট ভোটার সংখ্যা ১হাজার ৬শত ৬৮জন।

০৩ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী, মোঃ আছির উদ্দিন খান (ডালিম), মোঃ জামিরুল ইসলাম (পাঞ্জাবী), মোঃ জাহিদ হাসান (উটপাখি), মোঃ শফিকুল ইসলাম (পানির বোতল) । এখানে মোট ভোটার সংখ্যা ২হাজার ২শত ৩০জন।

০৪ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী, মোঃ মজিদুল ইসলাম (ডালিম)। এখানে মোট ভোটার সংখ্যা ২হাজার ১শত ৫১জন।

০৫ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী, মোঃ আসাদুজ্জামান (উটপাখি), মোঃ শামীম উল ইসলাম (ডালিম), শ্রী কার্তিক চন্দ্র শর্মা (পাঞ্জাবী), শ্রী জয়রাম দাস (টেবিল ল্যাম্প)। এখানে মোট ভোটার সংখ্যা ২হাজার ৫শত ৫০জন।

০৬ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী, এ এইচ তারেকুজ্জামান (টেবিল ল্যাম্প), মাহাবুব আক্তার কামাল (ডালিম), মোঃ আজিজুল হক দুলাল (পাঞ্জাবী), মোঃ রেজবানুল কবির (রুবেন্স) (উটপাখি)। এখানে মোট ভোটার সংখ্যা ৩হাজার ৪শতজন।

০৭ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী, মোঃ আবু সাঈদ সুজন (উটপাখি), মোঃ মমিনুর রহমান (ডালিম), মোঃ রবিউল ইসলাম (পাঞ্জাবি)। এখানে মোট ভোটার সংখ্যা ৩হাজার ৩শত ১৯জন।

০৮ ০২ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী, মোঃ আমির হোসেন মাসুম (ডালিম), মোঃ নজরুল ইসলাম (পাঞ্জাবী), মোঃ মারুফ ইকবাল (উটপাখি)। এখানে মোট ভোটার সংখ্যা ২হাজার ৯শত ২জন।

০৯ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী, মোঃ কুদরত-ই-ইলাহী (উটপাখি), মোঃ হাবিবুর রহমান (পানির বোতল)। এখানে মোট ভোটার সংখ্যা ২হাজার ৭জন।

পাটগ্রাম পৌরসভা নির্বাচনে সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন-

এক (১,২,৩) নং ওয়ার্ডে সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী, শামীমা আক্তার (আনারস)। এখানে মোট ভোটার সংখ্যা ৫হাজার ৫শত ২৬জন।

দুই (৪,৫,৬) নং ওয়ার্ডে সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী, মোছাঃ ফাতেমা খাতুন (চশমা), মোছাঃ রেহেনা ইয়াসমিন (আনারস)। এখানে মোট ভোটার সংখ্যা ৮হাজার ১শত ১জন।

তিন (৭,৮,৯) নং ওয়ার্ডে সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী, মোছাঃ তাজমিরা বেগম (আনারস), মোছাঃ মফিনা বেগম (চশমা)। এখানে মোট ভোটার সংখ্যা ৮হাজার ২শত ২৮জন।

জানা গেছে, নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠানের জন্য আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর পর্যাপ্ত সদস্য এবং ম্যাজিস্ট্রেট মোতায়েন করা হয়েছে। ভোটকেন্দ্র ছাড়াও নির্বাচনী এলাকাগুলোতে বিজিবি, পুলিশ ও আনসার মোতায়েন করা হয়েছে। এছাড়া মোবাইল টিম এলাকায় টহল দিচ্ছে।