সংবাদ শিরোনাম

ছাত্রলীগ নেতার প্যান্ট চুরির ভিডিও ভাইরাল!পাটগ্রামে ইউএনও’র উপর হামলা, আটক ৬আগের সব রেকর্ড ভেঙ্গে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু ৮৩ জনেরশফী হত্যা মামলা: মামুনুল-বাবুনগরীসহ ৪৩ জনকে অভিযুক্ত করে প্রতিবেদনখালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় সারাদেশে দোয়া কর্মসূচিরোহিঙ্গা শিবিরে ফের অগ্নিকান্ডসালথায় তান্ডব: এসিল্যান্ডের বিরুদ্ধে উঠা অভিযোগের সত্যতা মিলেনিশাহজাদপুরে কৃষকদের মাঝে হারভেস্টার মেশিন বিতরণচাঁদপুরে গণমাধ্যম সপ্তাহের রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি পেতে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপিশ্রমিকদের যাতায়াতের ব্যবস্থা না করলে আইনি পদক্ষেপ : শ্রম প্রতিমন্ত্রী

  • আজ ৩০শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

সাংবাদিক মুজাক্কির হত্যার বিচারের দাবিতে কালো পতাকা মিছিল

৩:০৯ অপরাহ্ন | সোমবার, মার্চ ১, ২০২১ চট্টগ্রাম
journalist

মো: ইমাম উদ্দিন সুমন, নোয়াখালী প্রতিনিধি: সাংবাদিক মুজাক্কিরের হত্যাকারীদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়ে কালো পতাকা মিছিল করেছে নোয়াখালীর গণমাধ্যম কর্মীরা।

সোমবার (১ মার্চ) সকাল ১১টায় নোয়াখালী প্রেসক্লাবের প্রাঙ্গণ থেকে একটি কালো প্রতাকা মিছিল বের হয়। জেলার গণমাধ্যম কর্মিরা কালো পতাকা মিছিলে অংশগ্রহণ করে সাংবাদিক মুজাক্কিরের খুনিদের দ্রুত গ্রেফতার ও বিচারের দাবি জানান। মিছিলটি মাইজদী বাজারের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক পদক্ষিণ শেষে পুনরায় প্রেসক্লাবের সামনে এসে শেষ হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, নোয়াখালী প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি বখতিয়ার সিকদার, দৈনিক যুগান্তর জেলা প্রতিনিধি মনিরুজ্জামান চৌধুরী, দৈনিক মানবজমিন স্টাফ রিপোর্টার নাসির উদ্দিন বাদল, সময় টিভি নোয়াখালী প্রতিনিধি সাইফুল্লাহ কামরুল, দৈনিক যায়যায় দিন’র জেলা প্রতিনিধি আবু নাছের মঞ্জু, দৈনিক দিশারী সম্পাদক আকাশ মো. জসিম,বাংলাদেশ প্রতিদিন জেলা প্রতিনিধি আকবর হোসেন সোহাগ, দৈনিক বণিক বার্তা জেলা প্রতিনিধি সুমন ভৌমিক, বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম (বিএমএসএফ) নোয়াখালী সভাপতি ও কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সম্পাদক তাজুল ইসলাম মানিক ভূঁইয়া, ৭১ টিভির জেলা প্রতিনিধি মিজানুর রহমান প্রমূখ।

উপস্থিত গণমাধ্যম কর্মীরা মুজাক্কির হত্যার বিচার না হওয়া পর্যন্ত ঐক্যবদ্ধ হয়ে আন্দোলন সংগ্রাম চালিয়ে যাওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার উপজেলার চাপরাশিরহাট পূর্ব বাজারে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই বসুরহাট পৌর মেয়র আবদুল কাদের মির্জা ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান বাদলের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। ঘটনার ছবি ও ভিডিও ধারণ করতে গিয়ে ত্রিমুখী সংঘর্ষের মুখে পড়ে গুলিবিদ্ধ হন সাংবাদিক মুজাক্কির’সহ ৭-৮জন। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার রাত ১০টা ৪৫ মিনিটে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যান মুজাক্কির।