সংবাদ শিরোনাম

ছাত্রলীগ নেতার প্যান্ট চুরির ভিডিও ভাইরাল!পাটগ্রামে ইউএনও’র উপর হামলা, আটক ৬আগের সব রেকর্ড ভেঙ্গে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু ৮৩ জনেরশফী হত্যা মামলা: মামুনুল-বাবুনগরীসহ ৪৩ জনকে অভিযুক্ত করে প্রতিবেদনখালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় সারাদেশে দোয়া কর্মসূচিরোহিঙ্গা শিবিরে ফের অগ্নিকান্ডসালথায় তান্ডব: এসিল্যান্ডের বিরুদ্ধে উঠা অভিযোগের সত্যতা মিলেনিশাহজাদপুরে কৃষকদের মাঝে হারভেস্টার মেশিন বিতরণচাঁদপুরে গণমাধ্যম সপ্তাহের রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি পেতে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপিশ্রমিকদের যাতায়াতের ব্যবস্থা না করলে আইনি পদক্ষেপ : শ্রম প্রতিমন্ত্রী

  • আজ ৩০শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

দুর্নীতির অভিযোগে কারাবাসের সাজা ফ্রান্সের প্রাক্তন প্রেসিডেন্টের

৫:০৬ পূর্বাহ্ন | বুধবার, মার্চ ৩, ২০২১ আন্তর্জাতিক
Nicolas-Sarkozy

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:  দুর্নীতির অভিযোগে অভিযুক্ত হলেন প্রাক্তন ফরাসি প্রেসিডেন্ট নিকোলাস সারকোজি।  গত সোমবার তাঁকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়। আদালত নিকোলাসকে ৩ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ তিনি এক বিচারককে বেআইনিভাবে প্রভাবিত করার চেষ্টা করেছিলেন। নিকোলাস সারকোজির ৩ বছরের সাজা হলেও ২ বছরের সাজা সাসপেন্ড হয়েছে। অর্থাৎ সারকোজিকে হয়তো জেলে নাও যেতে হতে পারে।

২০০৭ সাল থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত ফ্রান্সে শাসনকাল ছিল নিকোলাস সারকোজির। এই সময়কালের মধ্যে একাধিক অভিযোগ ওঠে তৎকালীন ফরাসি প্রেসিডেন্ট সারকোজির বিরুদ্ধে। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল যে তিনি এক বিচারককে তাঁকে সাহায্য করার পরিবর্তে মোনাকোতে সিনিয়র পদ দেওয়ার প্রস্তাব করেছিলেন। কিন্তু প্রাক্তন এই ফরাসি রাষ্ট্রপতি এই অভিযোগ অস্বীকার করেন। বিচার চলাকালীন তিনি আদালতে বলেছিলেন যে তিনি “দুর্নীতির সামান্যতম কাজ কখনও করেননি”। কিন্তু তদন্তে নেমে তদন্তকারী অফিসাররা জানতে পারে সম্পূর্ণ ভুল পথে চালিত করছেন সারকোজি। টেলিফোনে আড়ি পেতে সমস্ত প্রমাণ পান অফিসাররা।

এরপর ২০১২ সালে আরও একটি মামলায় ফাঁসেন সারকোজি। সেবারও তিনি দুর্নীতিতে জড়িয়েছিলেন। অভিযোগ, তখন নির্বাচনী প্রচারে ২ কোটি টাকা গোপন করেন তিনি। সেই কারণে ব্যাঙ্কের ভুয়ো অ্যাকাউন্টও দেখিয়েছিলেন তিনি। ফ্রান্সের ইতিহাসে এই দুর্নীতি ‘বিগম্যালিয়ন স্ক্যান্ডাল’ নামে পরিচিত।

সব মিলিয়ে তিন বছর কারাবাসের সাজা হয়েছে প্রাক্তন ফরাসি প্রেসিডেন্ট নিকোলাস সারকোজি। ফ্রান্সের এক আদালত এই সাজা শুনিয়েছে তাঁকে। কিন্তু ৩ বছরের মধ্য়ে তাঁর মধ্যে ২ বছরের সাজা মকুব হয়েছে। বাকি আর ১ বছর কারাবাস ভোগ করার কথা তাঁর। কিন্তু ফ্রান্সের আইন অনুযায়ী কারোর এক বছর বা তার কম জেলের সাজা হলে তাঁকে জেলে নাও যেতে হতে পারে। সেক্ষেত্রে গৃহবন্দি হয়ে থাকতে হয় তাঁকে। মনে করা হচ্ছে নিকোলাস সারকোজিকেও হয়তো জেলে যেতে হবে না। গোটা সাজার মেয়াদ বাড়িতেই কাটাবেন তিনি। যদিও এনিয়ে এখনও চূড়ান্ত কিছু জানানো হয়নি।