সংবাদ শিরোনাম

ছাত্রলীগ নেতার প্যান্ট চুরির ভিডিও ভাইরাল!পাটগ্রামে ইউএনও’র উপর হামলা, আটক ৬আগের সব রেকর্ড ভেঙ্গে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু ৮৩ জনেরশফী হত্যা মামলা: মামুনুল-বাবুনগরীসহ ৪৩ জনকে অভিযুক্ত করে প্রতিবেদনখালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় সারাদেশে দোয়া কর্মসূচিরোহিঙ্গা শিবিরে ফের অগ্নিকান্ডসালথায় তান্ডব: এসিল্যান্ডের বিরুদ্ধে উঠা অভিযোগের সত্যতা মিলেনিশাহজাদপুরে কৃষকদের মাঝে হারভেস্টার মেশিন বিতরণচাঁদপুরে গণমাধ্যম সপ্তাহের রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি পেতে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপিশ্রমিকদের যাতায়াতের ব্যবস্থা না করলে আইনি পদক্ষেপ : শ্রম প্রতিমন্ত্রী

  • আজ ৩০শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

কারখানার বর্জ্যের ট্যাংকিতে পড়ে মা-ছেলেসহ তিনজনের মৃত্যু

১২:৪৮ অপরাহ্ন | বৃহস্পতিবার, মার্চ ৪, ২০২১ ময়মনসিংহ
fire

কামরুজ্জামান মিন্টু, স্টাফ রিপোর্টার- ময়মনসিংহের ভালুকায় প্রভিটা ফিড কোম্পানির বর্জ্যের ট্যাংকিতে পড়ে মা-ছেলেসহ তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতরা হলেন- রোহিত বাগচি (৪), শিশুর মা রুলি বাগচি (২৭) ও নিরাপত্তাকর্মী হৃদয় মিয়া (২২)।

এই কারখানায় রুলি তার স্বামী সজল বাগচিকে নিয়ে কাজ করতেন। তাদের বাড়ি রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলার বলদিপুকুরপাড় এলাকায়। তবে কারখানার নিরাপত্তাকর্মী হৃদয় মিয়ার পরিচয় এখনো পাওয়া যায়নি।

বুধবার রাত ৮ টার দিকে তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিস। উপজেলার ধীতপুর ইউনিয়নের বহুলি এলাকায় প্রভিটা ফিড কোম্পানির বর্জ্যের ট্যাংকিতে পড়ে তাদের মৃত্যু হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ত্রিশাল ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার মুনিম সারোয়ার বলেন, বুধবার বিকেলে এই কোম্পানির শ্রমিক সজল বাগচির ছেলে রোহিত বাগচি খেলা করার সময় বর্জ্যের ট্যাংকিতে পড়ে গেছে দেখতে পেয়ে মা রুলি বাগচি নামেন সন্তানকে উদ্ধার করতে। কিন্তু তারা উঠে না আসায় নিরাপত্তাকর্মী হৃদয় মিয়া তাদের উদ্ধার করতে ট্যাংকিতে নামেন। কেউ কাউকে উদ্ধার করতে না পেরে তিনজনেরই মৃত্যু হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, কোম্পানির বর্জ্যের ট্যাংকির ঢাকনার ভাঙা অংশ দিয়ে শিশুটি পড়ে গিয়েছিল। একে একে তিনজনের কেউ ট্যাংকি থেকে উঠতে না পারায় কারখানার অন্য শ্রমিকরা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের খবর দেয়। খবর পেয়ে ভালুকা ও ত্রিশাল থানার পুলিশ ও ত্রিশাল ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার অভিযান শুরু করেন। প্রায় চার ঘন্টার চেষ্টায় রাত ৮ টার দিকে শিশু রোহিত, তার মা রুলি ও নিরাপত্তাকর্মী হৃদয়ের লাশ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধারকারীদল। পরে মরদেহ পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এ ঘটনায় ভালুকা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল ইসলাম বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নেয়া হয়েছে। পরবর্তীতে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।