• আজ ২৯শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বগুড়ায় শিক্ষা প্রনোদনা পেতে প্রত্যয়নের নামে টাকা নেয়ার অভিযোগ

৮:৪৮ অপরাহ্ন | সোমবার, মার্চ ৮, ২০২১ রাজশাহী
গৃহবধূর মৃতদেহ Bagura news

সাখাওয়াত হোসেন জুম্মা, বগুড়া প্রতিনিধি: বগুড়ার শেরপুরে করোনা ভাইরাসের কারণে শিক্ষার্থীদের প্রনোদনা পাওয়ার জন্য বিদ্যালয় থেকে প্রত্যয়নপত্র দিতে টাকা নেয়ার অভিযোগ উঠেছে ফুলজোড় উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বেল্লাল হোসেনের বিরুদ্ধে।

জানা যায়,  শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, শিক্ষক-শিক্ষিকা ও ছাত্র-ছাত্রীদের বিশেষ অনুদান প্রদানের লক্ষে অনলাইনে আবেদন করতে বলা হয়। এর কতটুকু সত্যতা আছে তা কেউ জানেনা। আর এ কারণে প্রয়োজন হয় প্রত্যেক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কর্তৃক প্রত্যয়নপত্র। এরই প্রেক্ষিতে উপজেলার সকল বিদ্যালয়ে দেখা যায় শিক্ষার্থীদের উপচে পড়া ভীড়। আর এই সুযোগেই ফায়দা লুটতে প্রস্তুত কিছু অসাধু ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের প্রধানরা। এরই ফলশ্রুতিতে উপজেলার সুঘাট ইউনিয়নের ফুলজোড় উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে প্রত্যয়নপত্র দেয়ার কথা বলে ছাত্র প্রতি ১০০ থেকে ১২০ টাকা করে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে।

এ ব্যাপারে ওই বিদ্যালয়ের নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক কয়েকজন শিক্ষার্থী জানায়, আমাদের কাছ থেকে প্রধান শিক্ষক ১০০ টাকা নিয়ে প্রত্যয়নপত্র দিয়েছে। টাকা না দিলে অনুদানের অর্থ পাওয়া যাবেনা বলে আমাদের কাছ থেকে এ টাকা নিয়েছে।

এ প্রসঙ্গে ফুলজোড় উচ্চ বিদ্যালয়ের দপ্তরী মো. রাজু বলেন, প্রত্যয়ন পত্র নেয়ার কথা বলে কোন টাকা নেয়া হয়নি। তবে অনলাইনে আবেদন করার কথা বলে ১০০ টাকা করে নেয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে ফুলজোড় উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. বেল্লাল হোসেন বলেন, আমি কোন টাকা নেইনি। অফিসের দপ্তরী রাজু কিছু টাকা নিয়েছে বলে আমার কাছে খবর এসেছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. নজমুল হক বলেন, প্রত্যয়ন পত্র দেয়ার কথা বলে টাকা নেয়ার কোন বিধান নেই। কেউ যদি এ ধরনের কাজ করে থাকেন তাহলে ভুল করেছেন। এই সকল বিষয়ে অভিযোগ পেলে তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।