• আজ শুক্রবার। গ্রীষ্মকাল, ১০ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ। ২৩শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ। দুপুর ১:৩২মিঃ

সিলেটে চাঁদাদাবির অভিযোগে কাউন্সিলর সেলিমকে আ. লীগ থেকে বহিস্কার

⏱ | বুধবার, মার্চ ১০, ২০২১ 📁 আলোচিত
Sylhet news

আবুল হোসেন, সিলেট প্রতিনিধি: চাঁদাদাবি ও দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক পদ থেকে কাউন্সিলর ছালেহ আহমদ সেলিমকে সাময়িক বহিস্কার করা হয়েছে।

বুধবার (১০ মার্চ) অনুষ্ঠিত মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির জরুরী সভায় তাকে বহিস্কার করা হয়।

ছালেহ আহমদ সেলিম সিলেট সিটি করপোরেশনের ২২ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর। গত ৮ জানুয়ারি অনুমোদন হওয়া সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে তাকে সাংগঠনিক সম্পাদক করা হয়। সম্প্রতি বিভিন্ন বিতর্ক জড়িয়ে পড়েন সেলিম। দলীয় পদ পাওয়ার দুই মাসের মধ্যেই বহিস্কার হলেন তিনি।

সেলিমকে সাময়িক বহিস্কারের তথ্য নিশ্চিত করে সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন বলেন, দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে সেলিমকে সাময়িক বহিস্কার করে কারণ দর্শানো নোটিশ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া তার বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ ওঠেছে তা তদন্তে সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আইনজীবী প্রদীপ ভট্টাচার্যকে প্রধান করে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন- আইনজীবী বেলাল আহমদ ও আইনজীবী জাহিদ সরোয়ার সবুজ।

জানা যায়, সিলেট নগরের শাহজালাল উপশহর খেলার মাঠে মেলার আয়োজন করেছিলেন তৃণমূল নারী উদ্যোক্তা সোসাইটি নামের একটি সংগঠন। ওই এলাকার কাউন্সিলর ছালেহ আহমদ সেলিম তাতে বাধা দেন। মেলার আয়োজকদের অভিযোগ, মেলা আয়োজনের জন্য চাঁদা দাবি করেছিলেন কাউন্সিলর সেলিম। চাঁদা না দেওয়ায় তিনি মেলা বন্ধ করে দেন।

এ অভিযোগ এনে গত ৬ মার্চ সিলেট মহানগর পুলিশের শাহপরাণ থানায় ২২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ছালেহ আহমদ সেলিমের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন মেলার উদ্যোক্তা অনিতা দাস গুপ্তা।

এ ব্যাপারে ছালেহ আহমদ সেলিমের বক্তব্য জানতে তার মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি কল রিসিভ করেননি।