• আজ সোমবার। গ্রীষ্মকাল, ৬ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ। ১৯শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ। রাত ১২:৩৮মিঃ

ওবায়দুল কাদেরের পদত্যাগ চেয়েছেন মির্জা ফখরুল

১১:২০ পূর্বাহ্ন | শনিবার, মার্চ ১৩, ২০২১ জাতীয়
fokrul

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের পদত্যাগ দাবি করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

শুক্রবার (১৩ মার্চ) রাজধানীর গুলিস্তানে মহানগর নাট্যমঞ্চে জাতীয়তাবাদী কৃষক দলের চতুর্থ জাতীয় সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মির্জা ফখরুল এ দাবি জানান।

ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগের ওবায়দুল কাদের সাহেব খুব সুন্দর সুন্দর কথা বলেন। চমৎকার ফিরোজা কালারের আসনে বসে তিনি প্রতিদিন বিএনপির বিরুদ্ধে বিষোদ্গার করেন। প্রতিদিন তিনি বিএনপিকে ধমক দেন, শিক্ষা দেন। আমি বলব, আপনি আপনার ঘরকে আগে শিক্ষা দিন। আপনার ভাই কাদের মির্জা আপনার সম্পর্কে যেসব কথা বলেন, আপনাদের দলের নেতাদের সম্পর্কে বলেন, তারপরও তো আপনাদের থাকার কথা না। পদত্যাগ করা উচিত। আপনারা নিজেদের ঘরে মারামারি করে, দলাদলি করে ইতোমধ্যে দুজনকে হত্যা করেছেন। একজন সাংবাদিক, একজন রাজনৈতিক কর্মী।

মির্জা ফখরুল অভিযোগ করে বলেন, কীভাবে সমগ্র রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে দেশটাকে দলীয় সম্পত্তি বানিয়ে ফেলা হয়েছে, তা তারা দেখেছেন। সরকার দেশকে শোষণ করছে। এই সরকার খুব সুকৌশলে রাষ্ট্রের সব গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠান ধ্বংস করে দিয়েছে। বিচার বিভাগের এখন কোনো স্বাধীনতা নেই। বিচার বিভাগকে দলীয়করণ করা হয়েছে। খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মামলার কোনো ভিত্তি নেই। সেই মামলায় তাকে সাজা দেওয়া হয়েছে।

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসা বাংলাদেশে দিনে দিনে কঠিন হয়ে দাঁড়াচ্ছে বলে সম্মেলনে আশঙ্কা প্রকাশ করেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। সম্মেলনে খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা তুলে ধরতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা একটা কঠিন সময় পার হচ্ছি, একটা সংকটময় মুহূর্ত পার হচ্ছি। আমাদের দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে অন্যায় মামলায় সাজা দিয়ে আটক করে রাখা হয়েছে। তিনি অসুস্থ। এই দুই-তিনদিন আগে তাঁর আরো ছয় মাস সাজা স্থগিত করা হয়েছে বলছে। কোথায় সাজা স্থগিত করছে?’

সরকারের উদ্দেশে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আপনারা তাঁকে (খালেদা জিয়া) গৃহবন্দি করে রেখেছেন। চিকিৎসার জন্য তিনি বাইরে যেতে চেয়েছেন, সেটাও আপনারা দেন নাই। আপনারা তাঁকে বাংলাদেশে রেখেই চিকিৎসা করাতে বলছেন, যেখানে দিনে দিনে তাঁর চিকিৎসা অত্যন্ত কঠিন হয়ে দাঁড়াচ্ছে।’

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘আমরা অবিলম্বে দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই। আমরা আর কিছু চাই না। মুক্তি দিতে হবে, নিঃশর্তভাবে মুক্তি দিতে হবে। আমাদের যেসব নেতাকর্মী বন্দি আছেন, তাঁদের সবাইকে মুক্তি দিতে হবে। আমাদের নেতা ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান সাহেবের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে, আমাদের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে ৩৫ লক্ষ মামলা আছে, সেগুলো প্রত্যাহার করতে হবে, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল করতে হবে।’